কবিতায় পল্লীবাংলায় নবান্নের মেদুর রূপচিত্র কথকের আনন্দময় পরিব্রাজনের খুদকুঁড়ো হয়ে উঠেছে।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৯ ডিসেম্বর ১৯৮১
গল্প/কবিতা: ১টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftগল্প - নবান্ন (অক্টোবর ২০১৯)

নবান্ন
নবান্ন

সংখ্যা

কপিলদেব সরকার

comment ১  favorite ০  import_contacts ২১
আজ আমার ছন্দের উঠোনে
রিক্ত হেমন্তের গান,
ভেসে এলে মাধুকরী ক্ষণে
দু'মুঠো নবান্নের ধান,

কৃষাণীর মত কায়ক্লেশে
ঢেঁকিপাড়, আঙিনা-দুয়ারে
আমনের গন্ধলীনা দেশে
উছলিয়ে ওঠো কি বাহারে

শীষধান আঁচলের গিঁটে,
কাকবলী, পায়েসের ছড়া,
হলুদ ফসল, মাটি, ভিটে,
শাঁখের আজান, মেটে সরা

এভাবেই, ক্ষুধা-উপশমে
ভরে দিয়ো মাধুকরী-ঝোলা,
এভাবেই, রূপের পরমে
বিজনে জাগিয়ো বুকে দোলা।

advertisement

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement