নবান্নের নতুন দিক তুলে ধরা হয়েছে
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১ মার্চ ১৯৯৩
গল্প/কবিতা: ৫টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftগল্প - নবান্ন (অক্টোবর ২০১৯)

নবান্ন
নবান্ন

সংখ্যা

মোট ভোট

সুশান্ত হালদার

comment ১  favorite ০  import_contacts ৩২
নবান্ন তুমি যুবকের ফার্স্ট স্যালারি,
সেই স্যালারির টাকায় কেনায় বাসার বাজার,
বাবার জন্য একজোড়া জুতা, রিন্টুর জন্য একটা চামড়ার বেল্ট।
না-হ বলতে ইচ্ছে করে আসলেই নবান্ন উৎসব এসেছে যুবকের জীবনে।

নবান্ন তুমি ছোটবেলার অধির অগ্রহে বসে থাকা বায়োস্কোপ বাক্সে ভরা আনন্দ,
গামছা মাথায় হাতে খনজরি দিয়ে অনবরত গলায় দর্শক মাতানো সেই বায়োস্কোপওয়ালা।

নবান্ন তুমি ছোট শিশুর মুচকি হাসিভরা মুখে বলা ”বাবা কী আনছো বাজার থিকা”।
নবান্ন তুমি কৃষাণীর হাতে আঁকা উঠানের আল্পনা,
তমালপাড়ার মেলার নাগরদোলা, মুড়ি মুড়কি,পুতুলনাচ
অধির আগ্রহে বসে থাকা স্কুল পালানো এক দুষ্টু বালকের উৎসুক মন
নবান্ন তুমি স্বপ্নের এক আগুনের স্পুলিঙ্গ
বিকালে শিশু-কিশোরদের হাতে ব্যাট-বলের প্রতিদন্ধিতা।

advertisement

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement