স্বাধীনতা যেন আমি কে সেটা-
প্রকাশ করার এক অধিকার,
বুক ফুলিয়ে চলার পথে নির্ভীক পথিকের অহংকার.
স্বাধীনতাকে স্বাধীন করলো যারা
রিক্ত নয়নে আজ অশ্রু ফেলে তারা,
চল্লিশ বছরের সমর্থ যুবক সে আজ-
তবু কি স্থবিরতা, তবু কি জড়তা,
যেন সে এক বিশাল দেহি হান্দিকাপ্পেদ (handicapped) যুবক.
স্বাধীনতা আজ করুন স্বরে-
বলে আমায় স্বাধীন করো,
ধুয়ে মুছে পরিষ্কার করো-
আমার শরীরে লেগে থাকা যতো প্রসবের রক্ত.
এবার স্বর্ণ উজ্জ্বলতায় আমি জ্বলতে চাই,
যতো সব দেশের ভিড়ে মাথা উঁচু করে বলতে চাই-
আজ আমি স্বাধীন, আজ আমি গর্বিত.