নবান্নের ভীন্নতা

নবান্ন সংখ্যা

নাজমুল হুসাইন
  • 0
  • 0
  • ৯২০

আজ যে ধান উঠেছে গোলায়,হে মহাজন...
কৃষক পিতা আমার,রক্ত ঘামে করেছে উপার্জন।
তুমি যে পিঠার পায়েশ রেধেছ গিন্নী মা- শখের পরষ মেখে,
সে ধানের ময়লা ঝেড়েছে মা আমার,শাড়ির আঁচল ছেঁকে।
তুমি যে ধনের বাহাদুর আজ,ওহে বাহাদুর পুত্র,
সে আঁখের যোগাতে গিয়ে ব্যাথায় কাতর,
পিতা-মাতা ঘুমায়নি সারা রাত্র।
সুখের ঢেকুরে,আজ এ নবান্নের দুপুরে,
মহাজন তুমি খীলেল পান মুখে,
আমার পিতার কবর হয়েছে ঋনের কাফন মেখে।
মা আমার নির্বাক-
ক্ষুধায় কাতর শিশুরা টানছে ,ছেড়া শাড়ির আঁচ্ল,
এভাবেই নবান্ন আসে,বিধবা নারীর সাজে,
মহাজনের কাছে তুলে দেয় ফসল।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

২৯ সেপ্টেম্বর - ২০১৬ গল্প/কবিতা: ১ টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের আংশিক অথবা কোন সম্পাদনা ছাড়াই প্রকাশিত এবং গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী থাকবে না। লেখকই সব দায়ভার বহন করতে বাধ্য থাকবে।

প্রতি মাসেই পুরস্কার

বিচারক ও পাঠকদের ভোটে সেরা ৩টি গল্প ও ৩টি কবিতা পুরস্কার পাবে।

লেখা প্রতিযোগিতায় আপনিও লিখুন

  • প্রথম পুরস্কার ১৫০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • ্বিতীয় পুরস্কার ১০০০ টাকার প্রাইজ বন্ড এবং সনদপত্র।
  • তৃতীয় পুরস্কার সনদপত্র।

আগামী সংখ্যার বিষয়

গল্পের বিষয় "একাকীত্ব”
কবিতার বিষয় "একাকীত্ব”
লেখা জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২৫ মে,২০২১