নারী তোমার কান্না বাতাসে ভাসে
সকাল থেকে গভীর রাতের শেষে ,
রক্ত তোমার আমার বুকে মিশে
ঘুমাও মাগো তুমি ,
অন্ধকারের বুকের ভিতরে রয়েছি জেগে আমি ।
কাপুরুষ সব দিচ্ছে তোমায় ব্যথা
ব্যথা তোমার বলে না কোন কথা ,
নীরবে তুমি ঝরাও অশ্রু কোথা ?
ঘুমাও মাগো তুমি ,
অন্ধকারের বুকের ভিতরে রয়েছি জেগে আমি ।
ধর্ষণের জ্বালা তোমার বুকে
কত কষ্ট বলবে তুমি কাকে ?
করুন কান্না শুনছি চারিদিকে
ঘুমাও মাগো তুমি ,
অন্ধকারের বুকের ভিতরে রয়েছি জেগে আমি ।
বীরপুরুষও কেঁদেছে তোমার কোলে
তুমি তাদের স্তন্যদায়িনী হলে ,
মাতৃস্নেহ জেগেছে প্রতি পলে
ঘুমাও মাগো তুমি ,
অন্ধকারের বুকের ভিতরে রয়েছি জেগে আমি ।
ক্লান্ত স্তন ধুয়ে স্নেহের হাতে
আমার অশ্রু মাখিয়ে দেব তাতে ,
ক্লান্তি নিয়ে উঠবে না আর রাতে
ঘুমাও মাগো তুমি ,
অন্ধকারের বুকের ভিতরে রয়েছি জেগে আমি ।
দীর্ঘকালীন নিষ্পেষণে আজ
স্তন দুটিও হারায় যেন লাজ ,
কোথায় গেছে তোমার নতুন সাজ ?
ঘুমাও মাগো তুমি ,
তোমার জ্বালা বুকে নিয়ে রয়েছি জেগে আমি ।
শাণিত অস্ত্রে সাজবে মাগো কবে ?
করালবদনা বীরা্ঙ্গনা এবার তুমি হবে ,
কাপুুরুষ সব কাটবে অস্ত্রে যবে
জাগবে সেদিন তুমি ,
তোমার কোলে মাথা রেখে ঘুমিয়ে যাবো