বেদনার বিপরিতে যে দাঁড়ীয়ে যাবে
দীনহীন এ দগ্ধ যাপনের অঙিনায়
বল সে আনন্দ কোথায়?
সকল কল্পনা স্বপ্ন জুড়ে
চৈতালি ধূলো উড়ে উড়ে
প্রাণে প্রাণে হায়
পুরু হয়ে ওঠে যে বীণার তার
ভুলে যাওয়া সারগমে অঙ্গুলি ছলে না
বিচিত্র সে বীণায় ওঠেনা টংকার।
নিকষ নিরবতায় কেবলি বলে যায়
কখনও কী ছিলো কেউ বেদনার পাশে
আনন্দ আবাহনে তুলেছিলো বীণাখানি
জড়িয়ে ছিলো, তন্ময়তার বাহু পাশে!
এখনও কালের ধূলো জমে থরে থরে
রচনা করছে সমাধি
তবু ম্মৃতি জ্বলে যায়
বাতাসের প্রতিঘায় আমি শুধু রয়ে যাই
শেষ অবধি।