অতঃপর রেণুকা মাসীর কোলে জন্ম নিয়েছিলো আরেকটি সত্য
শরীরে সাদা কাপড় জড়িয়ে সত্যটাকে আলিঙ্গন করেছিল সাগ্রহে
ভীষণ সাহসিকতার সে আলিঙ্গন দুহাতে সাজিয়েছে জাতিকে
উপহার দিয়েছে হাজারো ভাষাশহীদ আর লক্ষ-লক্ষ মুক্তিযোদ্ধাকে
যাদের আজকাল স্মরণ করা হয় কেবলমাত্র এক মিনিট নিরবতায়
তারপর একদিন হঠাৎ করেই চলে গিয়েছিল রেণুকা মাসী
আর তাঁকে সঙ্গ দিয়েছিলো বুকভরা আক্ষেপ , হাহাকার
তবে হাজার বছর পরেও যদি ফিরে আসে কোন এক রেণুকা মাসী
সে’ই হয়তো দেখাবে নতুন কোন মুক্ত পৃথিবীর সন্ধান
যেখানে কেউ কার্পণ্য করবেনা কারো অধিকার ফিরিয়ে দিতে
যেখানে নাম্মাত্র স্বাধীনতার চাঁদর গাঁয়ে খুঁজতে হবেনা স্বাধীনতাকে
যেখানে আশ্রয় মিলবে নিজের সাথে অভিনয় করে বেঁচে থাকা মানুষদের
যেখানে পরাজিত মানুষ নির্ভয়ে আবৃতি করবে নজরুল কিংবা রবীন্দ্রনাথ
যেখানে তুমি কিংবা আমিও বেঁচে থাকবো কারো চোখের স্বপ্ন হয়ে