সুখপাঠ্য শান্তির জন্য এসেছ, শান্তি নাও।
বুকে যদি ভুল থাকে—তবুও !
দুহাতে নাও আমার জিন্দেগীর অভিধান !
অভিধানে শান্তির পায়রা উড়ছে ; নিকষ
কালো আঁধারেও...
তবু তুমি হারিয়ে যাও নীড়ে ; শান্তি
পাবেই।

গ্রাম্য বাতাসে বেড়ে উঠা দেহে—সুখ
চাও ?
তবে লজ্জাই লাল হও ; ঠোঁটে সবুজ হরণ
মাখো ;
গভীর জলাশয়ে পদ্মরাগের প্রাচীর ভাঙো।

রাজপথ বিলীন হয়ে গায়ে মেখেছে
ব্যর্থতার ছায়া,
সমর জয়ী প্রেমিকের বুকে মৃত্যুর ভয় !
এলোকেশী চুলে তার কবেকার আন্ধার,
মুছে যাওয়া শ্লেটে মাঝির মতো চলছে
জীবন।
ঠোঁটের ধারালো আঘাতে যখন মৃত্যুর পথে,
তখন তুমি—মুছে যাওয়া জলে ঢেউ খেলো ;
অন্ধকারে হারিয়ে যাও,
নৈয়ায়িক ক্ষণে তুমি পাবে আজন্ম সুখ।