আমি নিজেই যেন এক ছন্নছাড়া পৃথিবী
সূর্যাস্ত আর সূর্যোদয়ের অনিয়ম হচ্ছে যেখানে প্রতিনিয়ত ,
ঝরনার পানি মাটি ফুঁড়ে পাহাড়ে ওঠে !
সমুদ্র ভর্তি মেঘ আর আকাশে
উড়ে বেড়াচ্ছে লাল-সাদা নদীর স্রোত ।
বিধ্বস্ত আমি; আজ ঝড় আসে নিজের ভেতর থেকে ,
সবার অভিনয় স্বাভাবিক ভাবেই চলছে
নেই কোন প্রশ্ন বা দ্বিধা কারো মাঝে ।
আজ আমার মাঝেই প্রতি মুহূর্তে হয়
শত শত শ্মশান , দাহ হই আমিও
তবু সংজ্ঞাহীন আঁখি ।
সূর্যোদয় আমার ঘুম ভেঙে , অগ্নিকুণ্ডে ফেলেছিল
সূর্যাস্তের ক্ষণে
নতুন সূর্য এসে মোহিত করলো ।
ভেবেছিলাম জাগবো না আর ,
তবু বেঁচে থাকার লোভ সামলাতে পারিনি ,
এখন যেন আরেক সূর্যাস্ত !
ক্ষণিকের উত্তাপের শাস্তি; সহস্র
শ্মশান , দাহে দহিত সব ..
টের পায়না সভ্যতা ..
শুধু ছন্দহীন ছুটে চলা...
শ্মশানের কয়লাই তার একমাত্র সাক্ষী
এক পৃথিবীর কাছে ঘৃণিত আবর্জনা
আর এই পৃথিবীর চির অবসানের অবশেষ...