পালটে যাব বলে
বুকের ভিতর একটা পাথর চাপায়,হাজারটা।

পালটে যাব বলে
স্মৃতি গুলো রোজ গলা
টিপে টিপে মারি।
ব্যালকনিতে চেয়ারটা ফাকা পরে থাকে।
হাত বাড়িয়ে আকাশ ছুয়ে তাঁরা
ইনবক্সে শব্দ ছুড়ে বলিনা কী করছিস।
চোখের কোনে বন্যা হলে
মেঘ বৃষ্টি খেলি।

পালতে যাব বলে
আর তোর হাতের উপর
হাত রাখিনা।
ঠোঁটের উপর ঠোঁট।

পালটে যাব বলে
তোর মনের উপর রাখিনা
আমার মনের কোন জোর।

পালটে যাব বলেই তো
তোর আচল ছুয়ে বক্ষ
নাভি ছুয়ে রুক্ষ কেষ
চুম্বন করিনি অনেক দিন।

পালটে যাব বলেই তো
শুধু পালটে যাব বলেই
তোর তৃণভূমিতে বিলি কাটিনি।
মন সাগরে ভাসাইনি তড়ি।
মাপতে যায়নি গভিরতা।

পালটে যাব বলে
আজ বিকলঙ্গ শরির হিরোসিমা নাগাসাকি হয়।

পালটে যাব বলে
মস্তিস্কে বারুদ ছরাই।

পালটে যাব বলে
শুধু পাল্টাতে চায় বলে দাবানল।
তবু পারছিনা
যুগযুগ বহুযুগ ধরে পালটাতে চায়ছি।
তবু পারছিনা
স্মৃতিরা ভীর জমাচ্ছে।
তবু পারছিনা
একদম শেষ হয়ে যেতে।।