দিন রাত্রি খেটে মরি পাইনে আসল মুল্য,
ওরা যে ভাই ভাবে মোদের বলদের সমতুল্য।
যারা ইটের পরে ইট তুলে বানায় দালানকোঠা,
তাদের মজুরি দিয়ে হয় তোদের ভুড়ি মোটা।

সাত সিন্ধু মাড়িয়ে মাঝি, ধরে ইলিশ মাছ,
দালালেরা বেঁচে কিনে,আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ।
খেতের চাষি চাষ করে অন্যের অন্য যোগাই,
কখনো ওরা না খেয়ে সোনার গাত্র শুকাই।

ওরা চালাই ভ্যান রিক্সা গায়ের ঘাম ফেলে,
ঠিক মত দেয় না ভাড়া লাট সাহেবের ছেলে।
ওরা হাতের উপর পাথর ভেঙ্গে রাস্তা গড়ে পিচে,
তারা কেনো চাপা পড়ে তোদের গাড়ির নিচে।

নিচুস্তরের মানুষ বলে আজ আখ্যা দিস যাকে,
তাদের হাতে গড়া জুতো তোদের পায়ে থাকে।
সাদা কাফনের কাপড় আজ যারা বানায় ভাই,
তাদের তৈরি টাই-কোর্ট থাকে তোদের গায়।

মোরা যে একটু সুখের তরে করি কত পরিশ্রম,
মালিক শ্রমিকের মাঝে যেন রয় না ব্যতিক্রম।
প্রবাস থেকে বলছি আমি এই জীবন্ত ইতিহাস,
প্রবাসীদের অনন্তকাল থাকে দুঃখের দির্ঘশ্বাস।