স্বাধীনতার ভাজে ভাজে সাহস আবেগ; আনন্দ দানা বাঁধে।
বিবেকের রঙধনু উঁকি দেয় সুখে।
প্রলয়ের ডাক শোনে সুনসান নীরবতা; ওপাশে সোহাগ আঁকা আগামীর দেহ।
এপাশে সাগর আর নদীজল লীলাবতী মেয়ে। দেয়ালে টাঙানো রোদ; রোদের
মায়ায় ছাড়ে বিনোদিনী ঘর। নিথর আদরে থাকে লুকোনো সময়।
আজকাল ভুলে যায় ভাটার আবেগ; সেখানে জোয়ার আসে
সেখানে সোহাগ। স্বাধিকার বুকে আঁকে নীলাভ আকাশ। তারপরও উম নেই।
পড়শির চোখে নেই রাতভাঙা ঘুম। না পাওয়ার বেদনাকে জানায় বিদায়।