ছিদ্রান্নেষী পৃথিবীর অন্তলীন যাত্রা
যারা, তারা-য় হারিয়েছে ,তাদের কপালের কালো টিকার নাম কালো -রাত্রি।
যাপন করার মতো যা কিছু বৈধ,
বুঝি সব দিনের আলোয় ।
পরিত্রাণের কালো-রাত্রি মহাভারতের কর্ণ,
এক গুচ্ছা ভালবাসা অবৈধ।

ভঁয় ছিল বা চোখের পাতায় উত্ত্র-পশ্চিমে,
যেমন টিপ তুমি পড়তে শিখেছিলে কোনো এক অমানিশার রাতে
পৃথিবীর সমস্ত কালো রা এক হয়ে কি নিদারুন প্রসব বেদনায় ...
আলো দেখেছিলো কাল-রাত্রি।
ঈশান কোণের পদ্ম-নিশি এসে জমিয়েছিল
অন্ধ-গায়কের পাগল-পারা গান।
সেদিন গ্রহে-গ্রহে, তারায়-তারায় আছড়ে পড়েছিল সে গানের কলি
আমরা, পৃথিবীর অণু-জীবেরা শিখেছিলাম
কেমন করে হয় নিশি-যাপন।
আমার সমাজে কাল-রাত্রির সমাজ-জীবন, নারী-জীবন,
এক ভীষণ অ-সম সমীকরণে ব্রাত্য
বার-বণিতার মতো অসামাজিক,
তবু মৃত্যুর মতোই স্পষ্ট।
আর জন্মের মতো কাঙ্খিত।