এই রকমই এক ফাগুনে
মনিপুরী কন্যার প্রণয়ে
গান্ডীব ভুলে পার্থ ছুটে এসেছিলো
নিয়ে হৃদয়ের ফুল-

এই রকমই এক ফাগুনে
রাজপাট, খ্যাতি, যশ
নূরজাহানের হাতে সঁপেছিল
মোঘল-তনয় সলিম-

এই রকমই এক ফাগুনে
বনলতা সেনের খোলা চুলে
দেখে শত সূর্যের ঝিলিক
বাক্যরহিত হয়েছিল তার প্রেমিক,
আবার
এই রকমই এক ফাগুনে
মায়ের পাশে ক্ষুধার্ত ভায়ের লাশ দেখে
গান ভুলে কেঁদে উঠেছিলো
নাম না জালনা বসন্তের কোকিল।

এই রকমই এক ফাগুনে
বাংলা বলার অপরাধে
বুলেটের মালায় ঝাঁঝরা হয়ে
শুয়েছিলো ওপারের মকবুল-
ও ফাগুন
(ভালোবাসার) আগুন জ্বালো।
ও ফাগুন
(ভর্ৎসনার) আঘাত হানো।