সেদিন বিকেলে
ক্লান্ত সূর্যটা ধীরে ধীরে
ঢলে পড়ছিল পশ্চিম আকাশে,
গোধূলির আকাশে
ডানা মেলে পাখিরা সেশ ডাক দিয়ে
ফিরে যাচ্ছিল নিজের বাসায়।
তোমার ওই
চোখের ভেজা পাতার দিকে
তাকিয়ে মনতা বিষন্নতায় ভরে গেল,
চেপে রাখা অনেক কষ্ট গোধুলির আলোকে
আশ্রয় করে বেরিয়ে এসেছ নিঃশব্দে।
জমাট বাঁধা
কষ্টগুলো কখন যে নিজের অজান্তে
তোমার চোখের পলক ভিজিয়েছিল,
খেয়াল করনি
হয়তো,নানা কাজের ব্যস্ততায়
জানি তোমার কাছে আমার অপরাধ কখনো বড়ো নয়।
চোখের ভেজা
পলকখানি, গোধূলির শেষ আলো
পাখির গেয়ে যাওয়া গানের সুর,
বিঝুয়ে দিল
বিষন্নতায় ভরে দেওয়া মন
অস্ফুট স্বরে বলে গেল কতটা অপদার্থ আমি।