জানালার ওপাশে দাঁড়িয়ে মৃত্যু প্রহর গুনছে,
টিকটিক করে চলেছে ঘড়ির বিরামহীন কাঁটা,
শুধু সময়ের অপেক্ষা,
নতুন ঠিকানা চিরকুটে লিখে দরজায় সেঁটে,
পায়চারিতে ছুটছে এদিক সেদিক ধুলোমাখা বারান্দায়।
হাতে খণ্ঞ্জর,কান ফাটানো চিৎকার,
কাটাছেঁড়া রক্তমাখা বিবস্ত্র দেহ,
আড়ালে দাঁড়িয়ে অদ্ভুত রহস্যময় হাসি,
দরজার বাইরে এক পা এগোলেই,
হেঁচকা টানে নিয়ে টেনে হিচড়ে,
বুকের ভেতর এক ঘা মেরে কেড়ে নেবে প্রাণটা।