ঘরে একমুঠো চাল নেই,
কলসিতে এক ফোঁটা জল নেই,
চোখের অশ্রু মুছে দেবার মত আপনজন নেই,
তবুও আমি বাঁচতে চাই।
সোনালি সূর্যটা তার প্রচন্ড উত্তাপে পুড়িয়ে দেয়,
বর্ষণ শুরু হলেই বৃষ্টিরা আমাকে ভিজিয়ে দেয়,
আমার ঘরেই বেঁধেছে দুঃখের ছোট্ট আস্তানা,
তবুও আমি বাঁচতে চাই ।
রঙ্গিন স্বপ্নেরা অভিমান করে চলে গেছে,
একে একে করে প্রিয়জন হারিয়ে গেছে,
শত কষ্টের মাঝে ডুবে আছি,
তবুও আমি বাঁচতে চাই।
নোংরা পোশাকে ঢেকে আছে কাঁটাছেড়া দেহ,
বারবার টেনে নিয়ে যায় প্রিয়জনের মোহ,
শত কষ্টেও ভুলতে পারি না তাদের মায়া,
তবুও আমি বাঁচতে চাই।
চাই না রঙ্গিন কাগজে মোড়ানো সৌখিন খাবার,
চাই না রঙ বেরঙের দামি পোশাকের সমাহার,
এ পৃথিবীর মাঝে অতি সাধারন মানুষ হয়ে,
আমি বাঁচতে চাই ।