আমার দেশ, এখানে মাদুর পাতা আছে
স্নিগ্ধতায় সমস্তটা কেবল
অমৃতসুধা। শুন্য থেকে শুরু করে
পুকুর মাঠ বাগান ডিঙিয়ে জ্যোৎস্নারা আমাকে
ভাসিয়ে নিয়ে গেল
একটা মায়াবী মূর্তি টলটলে জলে, না দেখেনি কেউ
আমি ছাড়া

চন্দ্র আলোকিত মূহুর্তে আমি অন্ধকার মাপিনি
ঐ দূরে শেষ ট্রেনটা বেরিয়ে গেল
একটা আলো শুধু দেখা যাচ্ছে
ঈশ্বর জানালায় ও তো তোমারই মুখ
ভুল হয়নি আকাশের সমস্তটা নীল মেখে নিতে

ভোররাতে কবিতা জন্ম নিল
শিশির ধোওয়া প্রতিটা অক্ষরে মাটির গন্ধ
মাটিতেই আমার অহং মিশে থাকে
প্রতিটা নিশ্বাসে আরও উজ্জ্বল হই
আমাকে সযন্তে বারবার কোলে তুলে নিয়েছো
সেই জন্মমূহুর্ত থেকে...