বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২ জানুয়ারী ১৯৮৩
গল্প/কবিতা: ৫টি

সমন্বিত স্কোর

৪.৪৫

বিচারক স্কোরঃ ২.৪৫ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ২ / ৩.০

ক্যনভাসে তোমার ছবি

প্রশ্ন ডিসেম্বর ২০১৭

অনুভবের বৃষ্টিতে ভিজে একাকার হয়ে যাক

প্রশ্ন ডিসেম্বর ২০১৭

স্বাধীনতার মানে কি?

মুক্তির চেতনা মার্চ ২০১২

কবিতা - নারী (নভেম্বর ২০১৭)

মোট ভোট ৩০ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৪.৪৫ নারী

মাইনুল ইসলাম আলিফ
comment ১১  favorite ১  import_contacts ১৬৪
বিদঘুটে অন্ধকারে রোশনাই জ্বলে চাঁদের ,
যেন এক চিলতে আলোয়, কাজলা চোখে
অবাক করা সম্মোহনী চাওয়া।
হাওয়ায় হাওয়ায় এলো চুলে,
বাম পাঁজরে সুর তোলে,
হয় তুমি বিহঙ্গিনী সুনয়না
না হয় তুমি রক্তঢালা পীচপাথুরে
অর্থহীনা।
লজ্জা রাঙা লাজ কবিতার লজ্জা রঙে,
নীল যে তোমার ঠোটে,
মুক্তা ঝরে অলস দুপুর সন্ধ্যা শেষে।
অগ্নি লাভা ঠোটের কোণে,
বাঁকা হাসি স্বপ্ন বোণে,
হয় তুমি প্রজাপতি মেঘডানায় সুহাসিনী সুকন্যা
না হয় তুমি সীসাঢালা কাঁটাতারে
বীরাঙ্গনা ।
তোমার হাতে হাত রাখা হাত
আকাশ ভাঙ্গা বজ্রনিনাদ,
রাজমুকুটের পালক ছেড়া ক্ষতে।
তোমার হাতেই রক্ত ঝরে
আলতো ছোঁয়ায় বৃষ্টি ঝরে।
হয় তুমি বিষের বাঁশী সেবা দাসী
না হয় তুমি নীল ঢালা রাত জঠরে
কলঙ্কিনী।
হৃদয় অরণ্যে পাতা ঝরার অস্থির শব্দে
স্নেহের আধিক্যে কেঁদে উঠে পানকৌড়ির আসক্ত মন
অবাক সুর্যোদয়ে নতুন কুড়ির ক্রমশ অঙ্কুরণ।
হয় তুমি রত্নগর্ভা মায়ামতি মা
না হয় তুমি যোগ বিয়োগের কাব্য হাতে
বৃদ্ধাশ্রমী মা।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন