বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২০ আগস্ট ১৯৮৪
গল্প/কবিতা: ১১টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

১১

সেই দিন এই ঘাসে

পার্থিব জুন ২০১৭

নতুনের স্বাদ

অবহেলা এপ্রিল ২০১৭

মেঘলা রোদে

বর্ষা আগস্ট ২০১১

কবিতা - নগ্নতা (মে ২০১৭)

মোট ভোট ১১ কালের হাওয়া

সমীর দাশ
comment ৯  favorite ০  import_contacts ৮৮
কালরে হাওয়ায় ভেসে কোনো এক সময় আমি
নারীকে পূজতিাম দবেতার র্অঘ্য দিয়ে মনে মনে,
প্রাত্যহকি আরাধনায় মেতে, অবরিাম অনুগামী
হ’য়ে তখন দখেতাম তাদরে অবনত নয়নে।
দৃষ্টি বনিমিয়ে হ’তাম পুলকতি মায়াহরিনীর
মতো, লুটাতাম লজ্জাবতীর সব লজ্জা গায়ে মেখে;
ভালোবাসতাম ভূমকিম্পরে কন্দ্রেস্থল হ’তে অবনীর
সকল রন্ধ্রে সাড়া জাগেয়ি নবতায় নিজেকে এঁকে।

তখন চাহনরি প্রতফিলনে তীব্র ঝালরে মতো
মনরে কোথায় যনে এক বদেনা উৎপন্ন হ’তো।

এখন আমি নারীকে দেখি পুলকতি নয়নে,
শুধু ভালোবাসা লাগে শুকনো চড়িরে মতো,
আর সে দবেতার র্অঘ্যও গ্যাছে অ-আরাধনে,
ভূমকিম্প হারিয়েছে পরিধি হ’য়ে কন্দ্রেচ্যুত,
তাই তীব্র ঝালরে মতো ভালোলাগাও পায় না
সে মন, আর লজ্জা হারিয়েছে নর্লিজ্জতায়;
আজ আমি সভ্যতার পথে; তাই মনোআয়না
হ’য়েছে রঙনি, বদেনা রূপ নি’ছে র্ব্যথতায়;

তাই আজ নারী দেখে বস্মিতি হ’ই অসহনীয়;
ময়েরো শাড়েতি বড় বিশে রমণী হ’য়ে ওঠে,
বড় বেশি রমণীয়!
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন