বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১২ সেপ্টেম্বর ১৯৯১
গল্প/কবিতা: ৫টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

১০

কপাল

পার্থিব জুন ২০১৭

অবহেলার অঙ্গনে

অবহেলা এপ্রিল ২০১৭

ঐশ্বরিক চাওয়া

ঐশ্বরিক মার্চ ২০১৭

কবিতা - নগ্নতা (মে ২০১৭)

মোট ভোট ১০ একটি নগ্ন চিত্র

মোঃ ফরহাদ হোসেন
comment ১০  favorite ০  import_contacts ১৪৭
পাগলী টা যে মা হয়েছে,
বাবা হয়নি যে কেউ।
কষ্ট টা দেখে বুক ভেঙ্গে যায়,
উঠে সাগরের টেউ।
অনাহারে থাকা সৃত্মিভ্রম সেকি,
যৌবনে ডুবে ছিল।
নাকি নরাধম পিচশ টা তার,
কামনা মিটিয়ে দিল।
ঘোর আন্ধারে পথ পাশে ঐ,
ঝরে যাওয়া ফুল সে তো।
কুড়াতে এসে ওঠিয়ে ছিল রকে,
কিছু সুভাস রয়েছিল।
তবে কি পাগলি মাসিক নামের,
ব্যাথাতে ভাসত সদা।
কামনারা আগুন মিটাত কে হেসে,
নিষ্ঠুর নিরবতা।
দশ দশমে বের হয়ে এলো,
তুষার শুভ্র দেহ।
মা হয়েছে পাগলি টা যে,
বাবা হয় নি যে কেহ।
মানবতা এত নিচে চলে গেছে,
নগ্নতা করে খেলা।
দূষ দুষনের খেলায় কত যে
কেটে যায় কারও বেলা।
এই যে শিশুটা বড় হবে আর,
জারজ বলবে সবে।
এতে কোন তার নাই দূষটুকু,
কেউ কি ভেবেছে কবে।
নর পিচাশ টা রাতের আধারে,
পালিয়ে গেছে কবেই।
পাগলি টা যে ভুলতে পারেনি,
সুখ পেল প্রসবেই।
নগ্নতা আর কত নামে নিচে,
কত করে নোংরামি,
যাবে না এ কালি ধোও যদি তবু
ঢেলে দুনিয়ার পানি।
পাগলি টা যে মা হয়েছে,
বাবা হয় নি যে কেউ,
নগ্নতা যে ছেয়ে গেছে চর,
সাগরে গর্জে ঢেউ।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন