লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৬ সেপ্টেম্বর ১৯৮৪
গল্প/কবিতা: ১০টি

সমন্বিত স্কোর

৪.০২

বিচারক স্কোরঃ ২.১ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৯২ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftগভীরতা (সেপ্টেম্বর ২০১৫)

ভেতরেই সব
গভীরতা

সংখ্যা

মোট ভোট ১৬ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৪.০২

মোকসেদুল ইসলাম

comment ১২  favorite ০  import_contacts ৯৫৬
ভেতরেই গড়ে ভেতরেই ভাঙ্গে ভেতরেই ঘটে সব
বুকের ভেতর বাসা বাঁধে নীল প্রজাপতির উৎসব।
কালের পাহাড় রুপোলি রোদের অমৃত সব সুখ
আজন্ম বিশ্বাসে নিজের আয়নায় দেখি মাটির মুখ।
ধূপছায়া রাতে জোনাক যুবতীর উথালি-পাথালি নাচ
ষোড়শী চাঁদ উঁকি মেরে দেখে যৌবনা ঋতুর রাত।

উৎসুক হয়ে এগিয়ে আসে বনেদি কাশবন
মেহেদীর রঙে আল্পনা আঁকে স্পন্দিত জীবন।
জীবনের রং হয় নাকো ফিকে যতোই করি মোরা ঢং
ব্যর্থতা যতো ফেটে পড়ে ক্ষোভে বাঁকী সব হলো লোভ।
অচেনা ভ্রমর শুষে নিয়ে যায় মন্ত্রিত সব সুর
হিসাবের খাটিয়ায় আগুন লাগিয়ে সাধনা করি সাধুর।
কাঁটায় ভরা জীবনের পথ হয়না কখনো মধুর
আভিজাত্যের সিন্দুকে লুকিয়ে ফেলি বয়সী মুখ।

বিবর্তনের ছায়ার উপর জাদুকরী চোখ ফেলে
কেউ কেউ নাচে পুতুলের নাচ, ভেলকী দেখিয়ে বাঁচে।
ধর্মের হাটে চলে সুখ বেচা-কেনা মঙ্গল কাব্য অবহেলায় থাকে পড়ে
কে জ্বালিয়েছে অদেখা আগুন নিত্য যাচ্ছি পুড়ে।
উষর ভূমি উর্বর করতে ছড়িয়ে প্রেমের ডালি
বসে আছি হাটে কে কে কিনে নেবে তারই অপেক্ষাতে।

মমতার থালা চেটেপুটে খাও কালের আঙিনায় বসে
বিষাদের গান মুখরিত হোক শুষ্ক প্রান্তরে।
নোঙ্গর তোলো মাঝি সময় হয়েছে ভাসাও তোমার নাও
খরস্রোতা নদী পাড়ি দিতে হবে সামনে এগিয়ে যাও।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement