লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১ ফেব্রুয়ারী ১৯৭৩
গল্প/কবিতা: ৭৯টি

সমন্বিত স্কোর

৩.৫৭

বিচারক স্কোরঃ ২.১ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৪৭ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftভালবাসি তোমায় (ফেব্রুয়ারী ২০১৪)

সিন্ধুতে বিন্দুর সলিল সমাধি
ভালবাসি তোমায়

সংখ্যা

মোট ভোট ২৭ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.৫৭

জসীম উদ্দীন মুহম্মদ

comment ১৯  favorite ১  import_contacts ১,২৯৩
পরিত্যাক্ত ডায়েরির পাতা উল্টাতে উল্টাতে সেদিন
খুঁজে পেলাম আমার ভালোবাসার নাতিদীর্ঘ তালিকা ! এক, দুই করে
গুনতে গুনতে দেখি নেহায়েত কম নয়, দশটি ধ্রুবতারা !
শুরু হয় পাথরে ফুল ফোঁটা, বেড়ে যায় বুকের ধুঁক ধুঁক; আমি দুচোখ বন্ধ করে রাখি
কিছুক্ষণ পর অবাক তাকিয়ে দেখি, একে একে ঝরে পড়ছে নক্ষত্রের মিছিল
ফুটো হয়ে যাওয়া বেলুনের মত
মৃতপ্রায় আগ্নেয়গিরির মত
পাট খড়ির বিরহে ক্রমেই নেভে যাওয়া উনুনের মত
আমিও কেমন চুপসে যাই! নিজেকে মনে হয় হিমুর মত !অতঃপর আর কিছু মনে করতে পারি না
শুধু বুকের গভীরে একটু একটু চিন চিন ব্যথার অস্তিত্ব টের পাই
বার বার খুঁজতে চেষ্টা করি এ কার মুখ, কিছুই ঠাহর করতে পারি না
হঠাত আলোর উপর আলো আমাকে ঘিরে ধরে
শান্ত সৌম্য স্নিগ্ধ আলোকচ্ছটায় আমার সমস্ত অন্তরাত্মা কেঁপে কেঁপে উঠে
ভয়ার্ত কণ্ঠে কোনো রকমে জিজ্ঞেস করি, কে তুমি ?
এক সাথে আকাশ-বাতাস, স্বর্গ-মর্ত্য থেকে ভেসে আসে জলদ গম্ভীর কণ্ঠস্বর,আমি!আমি!আমি !!!
এক নিমিষে হারিয়ে যায় আমার অস্তিত্ব !
আগুনে ঝাঁপ দেওয়া উইপোকার মত আমিও সগর্বে চেঁচাতে থাকি, তুমি!তুমি!তুমি!!!
যৌবনের খরতাপে এক এক করে ঠায় করে নেয়া নামের তালিকাটা সদর্পে পুড়তে থাকে
শুরু হয় সিন্ধুতে বিন্দুর বিলীন হয়ে যাওয়ার অবিস্মরণীয় মঞ্চায়ন !
একি নাটকের যবনিকাপাত নাকি গৌরচন্দ্রিকা ? কিছুই বুঝতে পারছিলাম না!
মহা সুখের অতীন্দ্রিয় আবেশে শুধুই তলিয়ে যেতে থাকলাম
গভীরে --- আরও গভীরে ---- আরও গভীরে ------ !!!

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement