আমি এখন অন্ধকার দেখে আঁতকে উঠি
সব রাত যেমনি রাত নয়,
সব আলো যেমন উজ্জ্বল নয়,
তেমনি সব অন্ধকারও আমার কাছে অন্ধকার নয় ।

অন্ধকারেরও একটা রূপ থাকে,
আমার মা যখন একাত্তরে ধর্ষিত হয়েছিল ,
তখন কিন্তু রাত ছিলনা ;
প্রকাশ্য দিবালোকে দুপুরবেলায়
অন্ধকার নেমেছিল আমার মায়ের জীবনে ।

আমার মা এখনো বেচে আছেন
কিন্তু দুপুর হলেই আঁতকে উঠেন,
মিডিয়া আমার মাকে বিরঙ্গনা বলে
আমার কাছে "সেতো কলঙ্ক নারীর জীবনে " ।

রাজাকারেরা আমার মাকে দেখলে এখনো হাসে
বিরঙ্গনা বলে ডাকে , কিন্তু আড়ালে তো উপহাসই ।

সেদিন রাতে আমার মায়ের মুখে হাসি দেখেছি ,
মা আমাকে আশীর্বাদ করেছেন ;
ওই কানা হাশেমকে খুন করেছি বলে ।

স্বাধীনতার চল্লিশ বছর পরেও যখন গণতান্ত্রিক দেশে ,
মায়ের সামনে মুক্তিযোদ্ধার কন্যাকে ধর্ষণ করা হয় :
তখন আইন হাতে তুলে নিয়ে ধ্বংস করতে ইচ্ছা হয়
কেননা প্রতিটি মেয়েই একজন মা.

তাই অন্ধকার দূর করতে খুব ইচ্ছা হয়......