লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২ সেপ্টেম্বর ২০১৯
গল্প/কবিতা: ৫২টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

৩২

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftগ্রাম-বাংলা (নভেম্বর ২০১১)

বাস্তব সোনা
গ্রাম-বাংলা

সংখ্যা

মোট ভোট ৩২

খন্দকার আনিসুর রহমান জ্যোতি

comment ২৭  favorite ২  import_contacts ১,৬০৩
আমার মনে আঁখিতে আমি স্বপ্ন দেখেছি বহু বার,
শুধু গ্রামীন ক্ষেত খামার, তাতে সবুজের আলপনা-
-আঁকা বাঁকা পথের ধারে ছোট্ট কুঁড়ে ঘর।
ঘরের চালে শত শত লাউ কুমড়ার জ্বালী,
অথবা পার্শেই কোন ছোট্ট গাছে দুলছে ঝিঙে ফুল
কিম্বা লকলকতে ডগা গুনো দুরন্ত উচ্ছ্বাসে,
কাঁপছে দক্ষিণা বাতাসে সাপের জিহ্বার মতো,
একি স্বপ্ন সবি?.... না।
আমি দেখছি আরও চলতে পথের ধারে
বন বাদরে বিচিত্র রূপিণী,
ছোট ছোট ফুলের নাম না জানা কাহিনী,
ঘাস ফুলের গন্ধ আর বৈচিত্র্য গাঁথা মালা।
আমি পেয়েছি খুঁজে ছাতিম গাছের নীচে,
ঠাণ্ডা সুখাসন, দু ধারে কাঁশ বন,
নদীর আপন খেয়ালে চলেছে ছুটে,
সারি সারি সরিষার ভুঁই তাতে, হলুদে মাখামাখি।
আমি দেখি আরও দেখি,
নীল সবুজ প্রান্তরে অথবা
কুয়াশা ঢাকা ভোরে বিন্দু বিন্দু শিশির কণা,
নবারুণের নাবিনালোকে দামী অলংকারের মতো,
লেপ্টে রয়েছে সবুজের বুক-মাথা-পা,
আমি দেখি আধা পাঁকা ধানের শীষে,
কৃষকের চোখে ভাসে সোনালী আশার স্বপ্ন,
তাতে নতুন অস্বাদে বসে নবান্নের মেলা।
আমার গাঁয়ে প্রতিটি ঘরে ঘরে,
সাঁঝের বেলা ঘুম পাড়িয়ে যায় সুখের দমকা হাওয়া।
ক্রান্ত কৃষক স্বপ্ন দেখে রাতে,
সকালে সবুজের ঢেউয়ে যায় সুখের দমকা হাওয়া।
ক্লান্ত কৃষক স্বপ্ন দেখে রাতে,
সকালে সবুজের ঢেউয়ের তালে তালে,
আবার গা ভাসায় ক্লান্তির পথে,
একি স্বপ্ন সবি? ..... না।
এ আমার গাঁয়ের আঁকা ছবি, “বাস্তব সোনা।”

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement