বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২ সেপ্টেম্বর ২০১৮
গল্প/কবিতা: ৫২টি

সমন্বিত স্কোর

৩.৯

বিচারক স্কোরঃ ২.১ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৮ / ৩.০

keyboard_arrow_leftগভীরতা (সেপ্টেম্বর ২০১৫)

নৌকার অরণ্যে ফিরে আসা
গভীরতা

সংখ্যা

মোট ভোট ৩৩ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.৯

খন্দকার আনিসুর রহমান জ্যোতি

comment ১৪  favorite ০  import_contacts ৭১২
নীরদ মেঘের নীলে রথ সারথি তুমি
নিশীথে খুঁটে খুঁটে আনো নক্ষত্র প্রদীপ
প্রণয়ের ঝারবাতি জ্বালো হাঙরের পেটের ভেতর
সৈকতে আঁছড়ে পড়া অতৃপ্ত কামনার ঢেউ তুলে
এলোমেলো করে দাও ঐশিক নিয়মের স্রোত।

নিতান্ত হয়নি জানা মনের ব্যকুলতা
অন্তরের অদৃশ্য কোনায় নিরন্তর অসঙ্গতি
ছিলোনা ভেবে দেখার অলৌকিক সময়
অট্রালিকার অরণ্যে তোমার ঐশর্য্যের স্বর্ণ মন্দির
অভিসারী সন্ধ্যায় ধুপচি পিদিমে আরতি জ্বালো
শিরায় শিরায় ছড়িয়ে দাও সোহাগের আগুন।

আমি বৈচি ফুলের চুলে বাঁধি সস্তা রঙীন ফিতা
তুমি অযুত মনের মক্ষিরাণী দুর্বোধ্য কবিতা
আমি কাজল দীঘির জলে খুঁজি ধবল কুশুম
তুমি আকাশ থেকে কেড়ে আনো নক্ষত্রের ঘুম
সাগর যেমন তুমিও তেমন গভীর এবং বিশাল
অথচ আমি ভুল করে খুঁজেছি পদ্ম দীঘির জল।

আকাশের সাথে সাগরের প্রেম অনন্ত অসীম
শ্যাম জলে সৌদামিনীর প্রেম শ্বাশত চিরদিন
গভীর রাতের চন্দ্র তুমি সূর্য্য খোঁজো দ্রোহে
আমায় ছেড়ে বাস করো অন্য মনের গ্রহে।
অভিলাষী নৌকা তোমার ছিলোনা গতির ঠিক
ধরে রাখতে পারিনি চলে গেছো অন্যদিক।

সংসার সমুদ্রে নারীর মন নৌকার মতো টলমলে
রুপের ভারে কখন যে ডুবে গভীর জলের অতলে
জানতে পারেনি মনের সে কথা পৃথিবীর প্রাচীন বয়স
তবুও বারবার নৌকার অরণ্যেই ফিরে আসা
পরিচিত মনের শপথে পেতে প্রকৃতির আদিম পরশ ।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন