লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৪ সেপ্টেম্বর ১৯৮৬
গল্প/কবিতা: ১৯টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftশহীদ দিবস (মার্চ ২০১৮)

সে-ই ভালো
শহীদ দিবস

সংখ্যা

কাজী আনিসুল হক

comment ০  favorite ০  import_contacts ১৮৯
না। কোথাও যাব না,
বিজয়ের প্রথম প্রহরে শহীদের স্তম্ভে।
কোন সু-শীল আয়োজনে; কোথাও না।
অনেক হয়েছে_
এবার স্বেচ্ছা বন্দি; নিভৃতে অন্ধকারে-
মদ ও সিগারেটের সাথে কাটাবো সময়।

-মৃতদের কবরে তোমরা যাও, ফুলে ফুলে সাজাও
ভোর না হতেই সরব হবে প্যারেড গ্রাউন্ড।
কত ব্যানার-ফেস্টুন; চারদিকে লাল-সবুজ বাতি_

নগরে অভিজাত ভোজনালয় গুলো প্রস্তুত
কাল হলেই গলা কাটবে কপোত-কপোতি'র,
যারা নিত্য জুতা পায়ে পিষ্ট করে বায়ান্নর মিনার।

বোধের স্তরে জমাটবাধা ময়লার দায় কার!

পুষ্পাঞ্জলি শেষে গণতন্ত্রের আমলারা পসরা সাজাবে অফিসার ক্লাবে,
যেখানে হাইকোর্ট নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে জুয়া খেলায়।
তাতে কি যায় আসে সমাজ বা আইনের!
-ওরা স্বাধীন; স্ব-পক্ষের শক্তি! রাষ্ট্রিক

আগামীকাল সরকারী ছুটি। বন্ধ বিশেষ রুটিন,
কেবল সচল দিনমজুর; অর্থনীতির চাকা_
সাম্য, আধিকার পুঁজি বাম ও শ্রমিক নেতাদের।
ক্ষমতা মসনদে ওরা বানায় জনক; উৎসব নামে দালাল সংস্কৃতি বেঁচে খায়,
রোজ রাতে ওর কামলীলায় রচে চর্যাপদ, ঊনসত্তুর, একাত্তর ...

সহ্য হয় না দিনকানার হাট, ভন্ডামী, নোংরামি।

বড় স্যালুকাস আমার দেশ, ভাষা। বি-ডিজিটাল_

যে দেশে ভিক্ষার ঝুলি হাতে বীরাঙ্গনা,
রিক্সার প্যাডেলে মুক্তিযোদ্ধার পা।
নিত্যকার চিত্র ধর্ষন,খুন, রাহাজানি...
ভ্যাট ফাঁকি সাংসদ; মাদক ও মানব পাচার,
কালো টাকায় চলে ধর্ম ও সেবা হরহামেশা।

সেখানে কিডনি হাসপাতালে চিকিৎসাসংকটে দু'বছরের শিশু,
অনহামণী'র আকুলতা ভেবে না হয়, একান্তে মদে অর্ঘ্য সাজাবো...

পাপ হবে না, নারীতে মত্ত হলেও না।
এমনকি মা ছেঁড়ে মেয়ে'র কাছে গেলেও_
মায়বী চোখে স্বপ্ন বোনা দোষ নয়; কামনাবাসনা
তাতে সমাজতন্ত্রে কিছু ছেড়া যাবে না..
কবিতা হবে, সৃজন হবে সৃষ্টি।

পতিতার দেহ বেচা টাকা যায় পত্রিকা অফিসে; তবে সাধু সম্পাদক,
দারোগা বাবুরা চলে মাদক স্পটের আয়ে; ঘুষ হারাম নয়!
হারাম ও আইন বিরোধী সেটাই যা পকেট ভরে না সরকারের!

প্রতি প্যাকে অভিমান; একাকিত্বতা, দৈন্যতা আর প্রেম।

নিষ্পাপ ভোর; ঋতুচক্রে এখন কুয়াশা পাপ..
আলো আর আয়নাতে আজ-কাল ভীষণ ভয়,
ক্রমশ-ই মনেহয় মনুষ্যহীন; চারদিক অভিনয়।
প্রশ্নে প্রশ্নে জর্জড়িত জীবন; আসলে কে মানুষ?
রাজপথ-শ্লোগান-আগামীর প্রত্যাশা, প্যারেড ধ্বনি প্রশ্নাত্মক
মানচিত্রহীন পতাকা -মা-প্রকৃতি আর ভালোবাসা, এমনকি ঈস্বর?

ক্ষমা করো পূর্বপুরুষ, জন্মভূমি ,উত্তসরি; ক্ষমা করো আদি-অন্ত।
গোধুলি ডোবা সূর্য বর্ণ লাল, অভিন্ন বাঙলা রক্তগঙ্গা চিরচারী।

এলোমেলো ভাবনার কাঠগড়া...

টাকার কাছে সব অসহায়, মরার কাছে যায় অথর্ব।
জয়ে'র পক্ষে সবাই, তাই ভলো সময়ের সাথে আপোষ।
সে দলে আমি নই, চাওয়া নয় পাওয়ার জন্য বাঁচাতে চাই।
হ্যাঁ, ফের গোধুলির আগে স্বপ্নের কাছে যাবো। আগামীর পথে
নির্ঘুম আক্ষেপ আর অপেক্ষা, আজ না হয়..
তোমরা যাও মৃতদের স্তম্ভে। সে-ই ভালো।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

    advertisement