লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২৩ জুন ১৯৯১
গল্প/কবিতা: ৭টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

১৯

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকষ্ট (জুন ২০১১)

দ্বৈতসত্তা
কষ্ট

সংখ্যা

মোট ভোট ১৯

Safiqul Islam

comment ৯  favorite ০  import_contacts ৯৯৩
আমি একজন মানুষ আমার কথা বলার জন্য মুখ আছে, আঁকড়ে ধরার জন্য হাত আছে, চলাফেরা করার জন্য পা আছে, উপলব্ধি করার জন্য মন আছে কিন্তু কেউ কি জানে আমার ভেতরে এক আমি আছে। তার ভেতরে খুব যন্ত্রণা। সে কখনও বাইরে বেরোয় না তাই তার যন্ত্রণার কথা কেউ বোঝে না। উপরের যে আমি আছে, সে বড় সুখে আছে। তার কিছু প্রিয় বন্ধু আছে। সে তার মনের ব্যথা বন্ধুদের সাথে সহজেই ভাগাভাগি করতে পারে কিন্তু ভেতরে যে আমি আছে সে বড্ড বোকা। সে কারও সাথে মেশে না। সে তার ব্যথা কারও সাথে ভাগাভাগি করতে পারে না। সে তার ব্যথা তার ভেতরেই চেপে রাখে। সে এমন জটিল যন্ত্রণা ভোগ করে যা সে কাউকে বলতে পারে না।

আমার এই জীবনটা বহুরুপী। বারবার এই জীবনের রঙ বদলেছে। আর এই রদবদলের চাকার নিচে পড়ে আমার কিছু জীবন্ত আকাঙ্খাও দুমড়ে মুচড়ে পিষে গেছে। যাক ওদেরকে যেতে দেয়াই হয়ত ভাল। আর এখন পেছনের কথা ভাবি না। মাঝে মাঝে উপরের আমি এই ভেতরের আমিটাকে জ্বালাতন করে। আর তখন ভেতরের আমিটাকে লাঠিপেটা করি। বলি, তোর কেউ নেই। তোর যন্ত্রণায় তুই পোড় তাতে আমাকে জ্বালাস কেন? সত্যিই ও বড় একা, ওর যন্ত্রণা বড় বিষাদময়।


আমি জানি আমার এই দ্বৈতসত্তা মানুষিকতা নিয়ে আজীবন কাটাতে হবে। আমার মনের সবচেয়ে গভীর গলিটার আগুন কখনও নেভানো যাবে না। কখনও না। তাই ভেতরে আমিটা একাকী জ্বলবে আর উপরের আমিটা তাকে লাঠিপেটা করে যাবে। আর বলবে তোর কেউ নেই, তুই একাই পোড়। তোর পোড়া আগুনে একটা ইতিহাসের সৃষ্টি হোক। একটা মানুষ ভেতরে এত বড় যন্ত্রণা ভোগ করেছে কিন্তু তা সে জীবনে কারও সাথে শেয়ার করতে পারেনি।

advertisement

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • মামুন ম. আজিজ
    মামুন ম. আজিজ দ্বৈত সত্তা একটা সার্বজনীন বিষয়। এ থেকে কেউ মুক্ত নয়। সেই সার্বজনীন বিষয় তুলে ধরায সাধুবাদ জানাই। কিন্তু দ্বৈ সত্ত্বার সরূপ প্রকাশিত হযনি। হলে একটা সুন্দর গল্প হতে পারত।
    প্রত্যুত্তর . ৬ জুন, ২০১১
  • খন্দকার নাহিদ হোসেন
    খন্দকার নাহিদ হোসেন এটা হয়তো কবিতা হিসেবে লেখা। এ ধরনের কবিতায় অন্তত শেষে একটা ধাক্কা রাখতে হয় কিংবা পাঠকের কাছে কোন প্রশ্ন যেটা নিয়ে পাঠক কিছুক্ষণ যেন ভাবে। তারপরও আমার ভালো লাগলো আর কবির সাহসের জন্যই কবির জন্য ৫।
    প্রত্যুত্তর . ৮ জুন, ২০১১
  • তৌহিদ উল্লাহ শাকিল
    তৌহিদ উল্লাহ শাকিল amar kache apnar ei lekhati golpo bole mone hoyni . tobe apni valo lekhar chesta korechen . tobe chesta korle apni valo likhte parben . shuvkamona roilo .
    প্রত্যুত্তর . ১১ জুন, ২০১১
  • রনীল
    রনীল আত্মকথা পড়ার সুবিধা হল , এখানে লেখক অনেক বেশি সৎ থাকে... লেখকের সেই সততা উপভোগ করলাম... মামুন ভাইয়ের সাথে আমি ও একমত... দ্বৈত স্বত্বা নেই, এমন লোকই বরং খুজে পাওয়া যাবেনা... সাহিত্যে ও ব্যাপারটি অনেক বার এসেছে... ডঃ জেকিল এবং মিঃ হাইড, স্প্লিট পারসোনালিটি....  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . ১৮ জুন, ২০১১
  • শাহ্‌নাজ আক্তার
    শাহ্‌নাজ আক্তার tibro kosto pelam , ai আত্মকথা টি pore , oshadharon , vote ......
    প্রত্যুত্তর . ২৫ জুন, ২০১১
  • উপকুল দেহলভি
    উপকুল দেহলভি গল্পটি ভালো লাগলো; আপনাকে আমার ঘরে আমন্ত্রণ;
    প্রত্যুত্তর . ২৭ জুন, ২০১১
  • সূর্য
    সূর্য গল্পরূপ পায়নি। আত্মকথন হয়েছে। হয়তো লেখকের ইচ্ছেই এমন ছিল।
    প্রত্যুত্তর . ২৯ জুন, ২০১১
  • ফাতেমা প্রমি
    ফাতেমা প্রমি ভালো লাগলো,তবে গল্পের ফর্মাট এ ফেলা যাচ্ছে না..আরো লিখবেন আশা করি-এরচেয়ে আর একটু বড় গল্প.. তাহলে ভালো ভোটও দিতে পারতাম...
    প্রত্যুত্তর . ২৯ জুন, ২০১১
  • খোরশেদুল আলম
    খোরশেদুল আলম ভেতরের আমির কথা বেশ কষ্ট বুঝাগেল, ছোটকরে লেখা তবু কষ্ট কমনয়, ভালো, শুভকামনা রইল।
    প্রত্যুত্তর . ৩০ জুন, ২০১১

advertisement