লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৩০ মার্চ ২০১৮
গল্প/কবিতা: ৩৫টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftবাবা দিবস (জুন ২০১৩)

পিতার অবয়ব
বাবা দিবস

সংখ্যা

অরূপ কুমার বড়ুয়া

comment ৩  favorite ০  import_contacts ৩০০
আমার পিতৃপুরুষ আমার কাছে
হিমালয়সম প্রবল ব্যক্তিত্ব |
শ্বেত শুভ্র ধুতি পাঞ্জাবির সাথে
নিখুঁত মানিয়ে যেত প্রতিদিন
আমার বোধের আগে সাদা হয়ে যাওয়া
বাবার মাথার চুলগুলি |
গণেশ মাস্টার নামের এই মানুষটি
শিক্ষকতার প্রতি যতনা দরদী ছিলেন
তার চেয়ে আরো বেশি স্বপ্নে বিভোর ছিলেন
সারাজীবনের শ্রম মেধা দিয়ে
একটি আলোকিত সমাজ গড়তে |
কাজ করেছিলেন শিক্ষার আরো গভীর সমস্যা নিয়ে -
শিক্ষার্থীর আর্থিক, নৈতিকতা, মূল্যবোধ
এবং সামাজিক দায়বদ্ধতাকে কেন্দ্র করে |
গড়ে ছিলেন বৌদ্ধমন্দির নিজ উদ্যোগে
সময় পেরিয়ে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে
ধর্ম্মসুধার সাথে জড়িয়ে গেছে পূর্ণনাম |
জনপ্রতিনিধি হওয়ার হাতছানিকে
পাশকাটিয়ে গড়েছিলেন রাস্তা, কালভার্ট
ও সামাজিক উন্নয়ন |
প্রাকৃতিক বিপর্যয়, সামাজিক সমস্যায়
নিপুণ বুদ্ধিতে সমাধান দিতেন প্রগাড় বিশ্বাসে |
স্বাধীনতা সংগ্রামের নয়মাস দেখেছি
আমাদের সংসারের মাঝে
আরো কটি গৃহহীন, সহায়হীন একত্র হয়ে
কাটিয়েছি ভয়, উদ্বেগ ও স্বপ্নকে ভাগাভাগি করে |
কখনো মুক্তিসেনাদের বিশ্রাম, খাদ্য, তথ্য
নির্দেশনা দিচ্ছেন চিন্তিত মুখে
কখনো শত মানুষের সাহস যোগাচ্ছেন অকুণ্ঠ চিত্তে |
সকালে ঘুম থেকে উঠে কখনো দেখিনি বাবাকে
আবার রাতেও খুব কম সময় -
সারাদিন কোনো না কোনো লোক আমাদের বরাদ্দ
সময়গুলোকে ভাগাভাগি করে নিত |
শোনা হত তাদের দুঃখের কথা আনন্দের কথা
এভাবেই বিলিয়ে দিয়েছেন তাঁর স্বল্পায়ু
জীবনের সব সময়গুলো
মানুষের জন্য সমাজের জন্য |

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement