ব্যথা বেদনায় বিহ্বল মৃত্যু পদযাত্রী, ক্রন্দন রত প্রসূতি মা।
নিমেষে উঠেন হেসে, শুনেন যখন নব জাতকের প্রথম কান্না।
মা ছাড়া মায়ের জঠর যন্ত্রণা, ত্রিভুবনে বুঝিবে না কেহ আর।
মল-মূত্র কত না অনাচার, মায়ের নেই কোন বিরাগ অহংকার।
তনুজ-তনুজার তরে অনন্তকাল, অবিরাম স্নেহময়ই মায়ের মন।
সকল বিত্তের ছেয়ে মহামূল্যবান, মায়ের নিকট আপন সন্তান।
ছায়াময় পরম শান্তিনিকেতন, সন্তানের মস্তকে জননীর আঁচল।
সর্বজন স্বীকৃত প্রবাদ বচন, সর্বদা মায়ের কোল বেহেস্ত সম।
দুঃখ-কষ্টে নিস্তার পেতে, মুখে ধ্বনিত হয় স্বয়ংক্রিয় মা বচন।
অতুল্য মায়ের মতো এ ভবে, হয় না কেহ আর নিঃস্বার্থ আপন।
অকাতরে সর্ব-সুখ বিসর্জন দিতে পারে, যে 'মা' সন্তানের তরে।
বড় হয়ে মায়ের অবদান, ভুলে যায় যে সকল কুলাঙ্গার সন্তান।
পৃথিবীতে কে হতে পারে, তার ছেয়ে বড় নিকৃষ্ট ইতর নরাধম।