লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১২ ডিসেম্বর ১৯৮৩
গল্প/কবিতা: ৮টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftভালবাসা (ফেব্রুয়ারী ২০১১)

ভালোবাসার পদাবলী
ভালবাসা

সংখ্যা

খোন্দকার মোস্তাক আহমেদ

comment ৩৯  favorite ২  import_contacts ১,০৩৭
১.
দু’চোখে টানেল খুঁড়ে দেখি হারিয়েছি মহাকর্ষ---
পুরনো অসুখ ভালোবাসা হয়ে পেরুলো আলোকবর্ষ
আমি ভাঙি, ভাঙি আর গড়ি, হই চুর-চুর
কোন রসায়নে ইস্পাত হয় এতোটা ভঙ্গুর---!
সৌন্দর্য টানে খু-ব, জানে সে অসহ্য বিনাশ
হে আমার দীর্ঘশ্বাস, অকাল সর্বনাশ!
দোহাই খোদার, জ্বালিস নে আর এরূপ আগুন
বরং আমার জীবন নিয়ে নে, খুন কর, খুন!
২.
উদ্ভন্ত নাগরিক সময়; জীবন বাউন্ডুলে
বাউরি বাতাসে পলিথিনও হঠাৎ ওঠে ফুলে
বালিশ ভরা জমাট তুলো, শিথানে স্বপ্ন দূষণ
হতচ্ছাড়া বাঁধণ হারা, উচ্ছিষ্ট হই ভীষণ......
পুড়ে পুড়ে ছাই; ছাই থেকে হাওয়াই
নয়না, প্রেম দিওনা, তিক্ত এ দাওয়াই !
৩.
অনু কী পরমানু-- মুক্ত বাজার অর্থনীতি,
বস্তুমাত্রই ছুঁয়ে যায় রাজশ্রী’র জ্যামিতি......
---জেগে উঠে দেখি, রঙিন পোষ্টার হলে দেয়ালে
লাইট পোষ্ট আমি, নির্বাক থাকি, তক্ষক হবার খেয়ালে---
বাজার বুঝে ভালোবাসাও নিখাঁদ পুঁজিবাদ,
তবুও মনে জাগে যে কীসের আহ্লাদ!
৪.
কতোটা বয়স হলে মন সৃষ্টি হয়!
কতোটা কয়লা হলে দহন বুকে সয়!
আর কতো ব্যকুল হলে বল তোরে পাই?
আমি বন্ধু তোর স-ব চিবিয়ে চিবিয়ে খাই!
৫.
কাকে তুমি প্রেম বলো? কাকে ভালোবাসা?
কে চিনেছে কবে কার আহত মনের ভাষা?
আমার হাতের গোলাপ হাতেই নাহয় শুকাক....
মন কবেই বর্জ্য চিনে হয়েছে দাঁড় কাক !
বলাৎকার আজ বিশুদ্ধ ভালোবাসার আইন
বলতে কি হবেই তবুও হ্যাপি ভ্যালেন্টাইন?

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement