ষোলই ডিসেম্বর আমাদের মহান বিজয় দিবস। এই দিবসে স্বাধীনতার কিযে আনন্দ- সুখ-উল্লাস তা বুঝা যায় সূর্যোদয়ের সাথে সাথে। সারা বাংলায় আনন্দ রেলীতে শ্লোগানে শ্লোগানে মুখর হয়ে উঠে। বিভিন্ন রাষ্ট্রীয়,সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন বিভিন্ন অনূষ্ঠানের মধ্য দিয়ে দিনটি মহা উল্লাসে উদযাপন করে। তাই এখানে তুলে ধরার প্রয়াস হয়েছে। তবে তা সবার কাছে পরিপূর্ণ নাও হতে পারে।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৩১ জুলাই ১৯৭৬
গল্প/কবিতা: ৪টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftবিজয় দিবস (ডিসেম্বর ২০১৮)

গণকবর
বিজয় দিবস

সংখ্যা

মোহাম্মদ নূরে আলম সিদ্দিকী

comment ০  favorite ০  import_contacts ৩৫
আজ আমাদের বিজয় দিবস,
ষোলই ডিসেম্বর,
উঠেছে ওই পূবদিগন্তে
লাল দিবাকর।
ফুটেছে সব ফুল কলিরা
স্বাধীনতার উচ্ছ্বাসে
জুটেছে সব অলি মধুকর,
গাইছে মহা উল্লাসে।
ছুটেছে সব জন সাধারণ
উড়িয়ে বিজয় পতাকা
জয়বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু
শ্লোগানে মুখর জনতা।
সভা-সেমিনার নাচে-গানে
উল্লসিত আজ সকলে,
নেই যে এখন বাংলা আমার
হায়েনাদের দখলে।
মুক্ত স্বাধীন শোষণবিহীন
হয়েছে আমার দেশ,
তাই বুঝি আজ এত সুখ!
উল্লাসের নেই শেষ।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

    advertisement