প্রদত্ত কবিতাটি অলিক বিষয়টির সাথে মিল রয়েছে। এই কবিতাটি কাল্পনিক যা তিনটি অংশে বিভক্ত এবং রহস্যময় যা শেষ হয়েও শেষ নয়। কবিতার প্রথম অংশে কবি তার ভাবনার মধ্যে ডুবে গিয়েছেন। তিনি তার ভাবনার মধ্যে সব কিছুই বিলিন করে দিয়েছেন।যার ফল স্রুতিতে তিনি কল্পনার জগতে ডুবে গিয়েছেন। দ্বিতীয় অংশে কবি শীতের শিশির হতে চেয়েছেন।কবি অভূতপূর্ব দৃশ্য শিশির বিন্দু হয়ে সাদা চাদর মুরে মুক্তার মতো করে ফুটতে চেয়েছেন।আবার চিকচিক শিশির বিন্দু হয়ে টিনের চালে ঝরতে যে কেমন আনন্দ কবি সেই আনন্দ অনুভব করতে চেয়েছেন। আবার গাছের ডালে আর ঘাসের ডগায় শিশির বিন্দু হয়ে বসে থাকার কথা বলেছেন। তৃতীয় অংশে একটি রক্তিম সূর্য হতে চেয়েছেন। কবি শীতের ভোরে এক টুকরো মিষ্টি রদ্রু হয়ে শীতে কাঁপতে থাকা পথিকের গায়ে আলতো করে ছোয়া দিয়ে পথিকের শরীরকে একটু শিউরে দিতে চেয়েছেন। কবি বাস্তবতার পরিপেক্ষিতেই কল্পনার জগতে বিচরণ করেছেন। কবিতাটির তিনটি অংশই পরস্পরের সাথে সম্পর্ক স্থাপন করেছেন। তাই বলা যায় কবিতাটি অলিক বিষয়টির সাথে মিল রয়েছে।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২ জানুয়ারী ২০১৮
গল্প/কবিতা: ৫টি

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - অলিক (অক্টোবর ২০১৮)

অলিক
অলিক

সংখ্যা

মোঃ মামুন আহম্মেদ

comment ৩  favorite ০  import_contacts ৪৬
ভাবনার দুয়ার আজ খোলা
তাই বসলাম ভাবতে।
কল্পনার আকাশে দিলাম,
উজাড় করে সব,
পারলাম না কিছু ধরে রাখতে।

জানো আমি কি হতে চাই?
ঘন সাদা চাদর থাকা মুড়ে,
মুক্তার মতো করে ফুটবো আমি,
প্রকৃতির বুক চিরে,
চিকচিক শিশির বিন্দু হয়ে,
ঝরবো আমি টিনের চালে।
অভূতপূর্ব দৃশ্য শিশির বিন্দু হয়ে,
বসে রবো,
ঘাসের ডগায় ও গাছের ডালে।

আমি তো হতে চাই রক্তিম সূর্য
রোজ শীতের সকালে,
কুয়াশার চাদরে মোড়া প্রকৃতিটাতে
ঘন সাদা পর্দা ভেদ করে,
থাকবো উজ্জ্বল্য ছড়াতে।
যখন কুয়াশার অবগুণ্ঠন ছিড়ে,
নিস্তব্ধতার বুক চিরে,
হেঁটে যায় কোনো পথিক,
শীতের কনকনে ঠান্ডায়,
কাঁপছিল গা।
তখন আমি কি করবো জানো?
একটুকরো মিষ্টি রদ্রু হয়ে
আলতো করে গাঁ ছুয়ে,
একটু শিউরে দিয়ে যাবো।
আহ! ত্বকে একি শিহরণ।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement