এ কবিতায় বর্ণিত হয়েছে এক ব্যক্তির হাটে, রাস্তায় ও বস্তিতে ঘুরে ঘুরে স্বাধীনতার পক্ষে মানুষকে উজ্জীবিত করার ঘটনা।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২৭ মে ২০১৯
গল্প/কবিতা: ১৩টি

সমন্বিত স্কোর

২.৬৮

বিচারক স্কোরঃ ১.২৮ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৪ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - স্বাধীনতা (মার্চ ২০১৯)

ভবঘুরে
স্বাধীনতা

সংখ্যা

মোট ভোট প্রাপ্ত পয়েন্ট ২.৬৮

নুহিয়াত আরেফিন

comment ৪  favorite ০  import_contacts ১০২
“পশ্চিমপাড়ায় কাইলকা মিলিটারি গেছিল।
মাইয়াগো বুক থেইক্যা নাভি পর্যন্ত শাড়ি খুবলায়া
হেঁচড়াইতে হেঁচড়াইতে লয়া গেছে ক্যাম্পে।
জানোয়ার! . . .”- কথাগুলো বলতে বলতে
একবার পূর্ব ও একবার পশ্চিমে
পানের পিক ফেলত লোকটা।
হাতের তালু ঘষে কপালের টকটকে ঘাম মুছত।
কান গরম হয়ে উঠত অনেকের।

তারপর এভাবেই হাটে, রাস্তায়, বস্তিতে
মার্চ থেকে নভেম্বর
অসংখ্য জ্বালাময়ী বক্তব্য ও চটকদার গল্প বলে
শেষটায়
‘নেংটা, নেংটা’ বলে চিৎকার করতে করতে
যখন ফায়ারিং স্কোয়াডের মুখোমুখি হলো লোকটা
তখন
আমরা তার গা গুলিয়ে ওঠা ফেনাময় মুখ দেখেছিলাম – বিকৃত।
নাক উল্টে বমি আসছিল আমার!

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement