লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৩ নভেম্বর ১৯৭২
গল্প/কবিতা: ২টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

২২

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - রমণী (ফেব্রুয়ারী ২০১৮)

উদ্বাস্তু রমণী
রমণী

সংখ্যা

মোট ভোট ২২

Monowara kumu

comment ৭  favorite ০  import_contacts ৭৬৬
মনোয়ারা কুমু ।
ঐ যে দেখো,
নদীর তীর ঘেঁষে ঠায় দাঁড়িয়ে থাকা অশ্বথ ছায়া তলে যে নারী অপলক তাকিয়ে ধীর স্থির স্বচ্ছ নদীর জলে,
একদিন তার চঞ্চলতায় মুখরিত হতো গ্রামের মেঠো পথ;
হেসে উঠতো হলদে সর্ষে ফুল আম আমলকি জলপাই;হেসে উঠতো ছোট্ট শুভ্র বকুল।
আজ সে নির্বাক, তার হৃদয় উঠোনে রাজ্যের নীরবতা।
আজ আর আলতা চরণে রিনিঝিনি সুর তোলে না রূপোর প্রিয় নূপুর বসন্ত এলেও কোকিলের ডাকহীন কেটে যায় তার শান্ত দুপুর।
হরিণী চোখে এক আকাশ স্বপ্ন ছিলো পৌষ পার্বন নব্বানের সাধ ছিলো নির্ভরতায় বিশ্বাস ছিলো,
আজ তার কিচ্ছু নেই; কিচ্ছু না,
অবিশ্বাসের নগ্নতায় উবে গেছে সব থেমে গেছে;ছিলো যত কলরব। তবু বেঁচে থাকে--- সমাজ ধিক্কার উপেক্ষা করে, কলঙ্ক কালিমায় কলুষিত আঁধারে অধীর অপেক্ষা তার, আপন সত্ত্বায় নিজের ভেতর বেড়ে ওঠা পৃথিবী দেখবার।
ঐ যে দেখো, নদীর তীর ঘেঁষে ঠায় দাঁড়িয়ে থাকা অশ্বথের ছায়া তলে যে নারী অপলক তাকিয়ে ধীর স্থির স্বচ্ছ নদীর জলে, সে আজ বাস্তুভিটাহীন উদ্বাস্তু এক রমণী নিরেট আঁধারে তার নিঃসঙ্গ ধরণী।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • রফিকুল ইসলাম চৌধুরী
    রফিকুল ইসলাম চৌধুরী বেশ ভাল একটি কবিতা। অনেক ধন্যবাদ।
    প্রত্যুত্তর . ১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮
  • বালোক মুসাফির
    বালোক মুসাফির অসাধারন কবিতা। অপূর্ব ক্রন্দসী প্রকৃতির মাঝেএক উদ্বাস্ত্ত রমণীর কাহিনী তুলে ধরেছেন। অকৃত্রিম শুভ কামনা সাথে আমার ওয়ালে নিমন্ত্রণ রইল । আসবেন কিন্তু।
    প্রত্যুত্তর . ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮
  • ম নি র  মো হা ম্ম দ
    ম নি র মো হা ম্ম দ অসাধারন কবিতা...ভালো লেগেছে ,আসবেন আমার কবিতার পাতায় আমন্ত্রণ!
    প্রত্যুত্তর . ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮
  •  মাইনুল ইসলাম  আলিফ
    মাইনুল ইসলাম আলিফ আপা আপনিতো দারুণ কবিতা লিখেন।আমার খুবই ভাল লেগেছে।চমৎকার থিম।শুভ কামনা।পছন্দ আর ভোট রইল।আসবেন আমার কবিতার পাতায়।
    প্রত্যুত্তর . ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮
  • মামুনুর রশীদ ভূঁইয়া
    মামুনুর রশীদ ভূঁইয়া বয়সী বটের তলে এ যেনো নুতন কুঁড়ির হারানো স্মৃতিচারণ। ভালো লাগল কবিতাটি। পছন্দ না করে উপায় নেই। আসবেন আমার গল্প ও কবিতার পাতায়।
    প্রত্যুত্তর . ১১ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮
  • সালসাবিলা নকি
    সালসাবিলা নকি খুব ভালো লেগেছে কবিতাটি
    প্রত্যুত্তর . ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮
  • ওয়াহিদ  মামুন লাভলু
    ওয়াহিদ মামুন লাভলু যার চঞ্চলতায় একদিন মুখরিত হতো গ্রামের মেঠো পথ, আজ সে বাস্তুভিটাহীন উদ্বাস্তু এক রমণী। তাই তার মনে এখন রাজ্যের নিরবতা। তার দুঃখ ঘুচিয়ে দেওয়ার কেউ নেই। এরকম রমণীর পাশে দাঁড়ানো প্রয়োজন, যাতে তার নির্বাক ও অসহায় অবস্থা দূর হয়ে যায়। অনেক মানসম্পন্ন কবিতা। আমার...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮

advertisement