ঋষি মানুষের প্রতিক। মানুষের অনেক থাকার পরও অারও অনেক চায়। কিন্তু অন্য কেউ কিছু চাইলে সে দিতে চায় না ;কৃপনতা করে। মানুষ বড়ই কৃপন। তাই কবিতার বিষয় কৃপনতার সাথে সাদৃশ্য হয়েছে বলে অামি মনে করি।
-লেখার সাথে বিষয়ের সামঞ্জস্যতা ব্যাখ্যায় লেখকের বক্তব্য

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২ জানুয়ারী ১৯৮৬
গল্প/কবিতা: ২৫টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - কৃপণতা (নভেম্বর ২০১৮)

ঋষি
কৃপণতা

সংখ্যা

মোট ভোট

এস জামান হুসাইন

comment ৯  favorite ০  import_contacts ২০৯
“বহু দিন পরে বহু ক্রোশ দূরে,
অরণ্য মাঝে ঝর্ণার ধারে,
হিমালয় পাহাড়ের পাদদেশে
গিয়েছিলাম আমি একা।”
“চক্ষু মুদিয়া, আসন পাতিয়া
খালি পায়ে, নগ্ন গায়ে বসিয়া
ধ্যানমগ্নরত এক ঋষির
হয়েছিল আমার দেখা।”

“কাছে গিয়ে আমি শুধাই তাহারে,
ধন আছে কি তোমার ভান্ডারে?
তাহা হইতে কি কিছু দিবে মোরে?
ঘুচাইব মোর অভাব!”
“কি যে বলিস এই সকাল বেলা?
জুটে ডাল ভাত মোটে দুই বেলা!
খালি হাতে ভিক্ষা চাস মোর কাছে।
এই বুঝি তোর স্বভাব!”

“দু’ হাত পিছিয়ে শুধাই আবার,
জ্ঞানের ভান্ড কী আছে বাবার?
বহু ব্যয় করে, বহু দেশ ঘুরে
আসিনু তোমার আসনে।”
“বকের ন্যায়, ষাট বছর ধরি
জ্ঞানের লাগিয়া তপস্যা করি
কিছুই হয়নি জমা ভান্ডারে,
কিযে দিব তোর বাসনে।”

“আছে কি তোমার কাছে উদারতা?
দিবে কি আমায় মহানুভবতা?
হৃদয় ছোঁয়ানো আলোর বন্যা
দূরে হঠাইতে আঁধার।”
“কোথায় সে উদারতা এইখানে?
আধাঁরী পোকায় ভরা সবখানে!
মহানুভবতার বড় অভাব!
হৃদয় - শূন্য পাথার!”

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • ফড়িং  .
    ফড়িং . দূর হোক কৃপনতা ধরা থেকে।
    প্রত্যুত্তর . ৩ নভেম্বর, ২০১৮
  • শামীম আহমেদ
    শামীম আহমেদ আপনার লেখার ভাবটা খুব চমৎকার। সহজে বলবো,অনেক ভালো হয়েছে, শুভ কামনা এবং ভোট রইল আমার পাতায় নিমন্ত্রন!!
    ভালো লেগেছে
    প্রত্যুত্তর . ৪ নভেম্বর, ২০১৮
  • এই মেঘ  এই রোদ্দুর
    এই মেঘ এই রোদ্দুর সুন্দর হয়েছে। আমার পাতায়ও আসবেন । ভালো থাকুন
    প্রত্যুত্তর . ৪ নভেম্বর, ২০১৮
  • এস জামান হুসাইন
    এস জামান হুসাইন ধন্যবাদ ফড়িং, শামীম অাহমেদ ভাঈয়া এবং এই মেঘ এই রোদ্দুর কে সুন্দর মতামতের জন্য।
    প্রত্যুত্তর . ৪ নভেম্বর, ২০১৮
  • মনতোষ চন্দ্র দাশ
    মনতোষ চন্দ্র দাশ জ্ঞানের কৃপণতা ফুটিয়ে তুলেছেন কবিতায়। ভালোলাগা বেশ।ভােট দিলাম।
    প্রত্যুত্তর . ১০ নভেম্বর, ২০১৮
  • এস জামান হুসাইন
    এস জামান হুসাইন মনের ভাল লাগায়েৎ শুভেচ্ছা রইল দাদা।
    প্রত্যুত্তর . ১০ নভেম্বর, ২০১৮
  • মুহাম্মাদ লুকমান রাকীব
    মুহাম্মাদ লুকমান রাকীব প্রিয় কবি/লেখক.
    অাপনাদের জন্য নতুন ওয়েব সাইট www.kobitagolpo.com
    তৈরি করা হয়েছে নতুন অাঙিকে।
    এখানে বর্তমান প্রতিযোগীতার জন্য নির্ধারিত “বাবা-মা” শিরোনামে লেখা জমা দেয়ার জন্য অামন্ত্রণ করা হচ্ছে। অাগ্রহীগণ ২৫ নভেম্বরের মধ্যে www.kobitagolpo.com এ লিখা জমা...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . ১৮ নভেম্বর, ২০১৮
  • নাজমুল হুসাইন
    নাজমুল হুসাইন কবিতায় নিজস্ব আইডেল তৈরি হলে বেশি ভালো হত,বিখ্যাত একজন কবির কবিতার সাথে কিছু জায়গায় মিলে মিশে একাকার হয়ে গেছে।লেখার হাতটা যখন ভালো,নিজস্ব একটা ভাবনা ধারা তৈরি হলে মন্দ কি?শুভ কামনা,আমার পাতায় আসবেন।
    প্রত্যুত্তর . ১৮ নভেম্বর, ২০১৮
  • এস জামান হুসাইন
    এস জামান হুসাইন সুন্দর পরামর্শের জন্য ধন্যবাদ।
    প্রত্যুত্তর . ২৩ নভেম্বর, ২০১৮

advertisement