লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৪ অক্টোবর ১৯৯৯
গল্প/কবিতা: ১টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - কষ্ট (ডিসেম্বর ২০১৭)

বেঁচে রবো তোমার প্রার্থনায়
কষ্ট

সংখ্যা

মোট ভোট

নিশাচর

comment -১  favorite ০  import_contacts ৫৪১
মা,
আমি শুনতে পাই তোমার
পাঁজর চিরে আসা আর্তনাদ,
জানি তোমার হৃদয়ের রক্তক্ষরণ
বাড়তে থাকে রাত জাগা আশংকায়।

হয়ত তোমার বিসর্জন
আমার চেয়েও বড়,
তুমি যেন নিজেরই হৃদপিন্ড
ছিঁড়ে দিয়েছো এই মাটির জন্যে,
বরণ করে নিয়েছো
এক জীবন কষ্টের ভার।

জানি মা,
এই কষ্ট হিংস্র নেকড়ের মত
প্রতিদিন তোমাকে খুরে থাবে,
কিন্তু এই কষ্টের থাথে মিশে
থাকবে বুক ভরা গৌরব,
তোমার কষ্টের দামেই
এই মাটি
আর এই মাটির মানুষ
পাবে সপ্নের স্বাধীনতা।

তবে মা,
নোনা জলে যখন মুখ ভিজে যাবে
তখন বুকে হাত রেখে অনুভব করো।
আমি বেঁচে আছি তোমার প্রার্থনাতে,
মিষে আছি তোমার অশ্রুর সাথে,
আমার সত্তা মিশে আসছে
তোমার নিশ্চুপ অপেক্ষায়।

কিন্তু, আমার সত্তা যে শুধু আমার নই,
আমার সপ্ন স্বাধীনতার
ঘরে ফেরার বাসনা ক্রমষ
মুছে আসছে ধূসরতায়।
কিন্তু, আমি বেঁচে রবো তোমার প্রার্থনায়
মিশে থাকব কিছু অকথিত ইতিহাসে,
জানি তবুও,
তোমার অশ্রু ভেজা চিহ্ন
রয়ে যাবে আমার অনির্মিত এপিটাফে।

দেখো একদিন আলো ফুটবে,
ভোর হবে স্বাধীনতার
সেই মুক্ত বাতাসের অস্থিরতায়
খুজে নিও আমাকে।

দেখো একদিন শেষ হবে
এই মাটির আর্তনাদ,
বৃষ্টি হবে শান্তির ফোটায়
তখন অবিরাম বর্ষায়
খুজে নিও আমাকে।

আমার রক্তমাখা মাটিতে
যেন বেঁচে থাকো তুমি
বুক ভরা গর্ব নিয়ে,
আমার বিসর্জনে
যেন শেষ হয় এই কাল রাত্রি
আমাদের সপ্নের ভোরে।

আমি বেঁচে রবো তোমার প্রার্থনায়
মিশে থাকব অকথিত ইতিহাসে,
জানি তবুও,
তোমার অশ্রু ভেজা চিহ্ন
রয়ে যাবে আমার অনির্মিত এপিটাফে।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • মোঃ নুরেআলম সিদ্দিকী
    মোঃ নুরেআলম সিদ্দিকী দেশের জন্য/ স্বাধীনতার জন্য যুদ্ধ করার ও ঘরে না ফেরার আত্মাহুতি মায়ের মাধ্যমে তুলে ধরেছেন, চমৎকার হয়েছে....
    কিন্তু দুই জায়গা দিয়ে আপনি বলেছেন→ অনির্মিত এপিটাফ। এপিটাফ মানে যা খোদাই করা থাকে, আবার আপনার এখানে সুদূর ইতিহাসেরও টান আছে অশ্রুজলের মাঝে। যদি বলে...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . thumb_up . ৫ ডিসেম্বর, ২০১৭
    • নিশাচর অসংখ্য ধন্যবাদ ভাইয়া।দোয়া করবেন।
      প্রত্যুত্তর . ৫ ডিসেম্বর, ২০১৭
    • নিশাচর আসলে ভাইয়া,মুক্তিবাহিনীর অনেকের ই কবর হয়নি,সাজানো এপিটাফ বাধানো হয়নি।অনেকের লাশ ও পাওয়া যায়নি এমনকি।সেই জাইগা থেকেই চিন্তা করে আসলে এই মনোভাবটি।ছেলেটি জানেনা তাকে দাফন করা হবে কিনা,এই অনিয়শ্চয়তার কারনেই সে কল্পনার এক এপিটাফে মায়ের অশ্রুর চিহ্ন থাকার কথা বলছে। অনির্মিত এপিটাফ শব্দটি এখানে অনেকটা রুপক হিসেবে ব্যবহার করার চেষ্টা করেছি।।।
      প্রত্যুত্তর . thumb_up . ৫ ডিসেম্বর, ২০১৭
  •  মাইনুল ইসলাম  আলিফ
    মাইনুল ইসলাম আলিফ গল্প কবিতায় স্বাগতম।ভাল লেগেছে।শুভ কামনা।আমার পাতায় আমন্ত্রণ।
    প্রত্যুত্তর . thumb_up . ১৬ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • মামুনুর রশীদ ভূঁইয়া
    মামুনুর রশীদ ভূঁইয়া ভালো লাগল.. ধন্যবাদ
    প্রত্যুত্তর . ২২ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • ওয়াহিদ  মামুন লাভলু
    ওয়াহিদ মামুন লাভলু যে মাটিতে থাকে আর্তনাদ, যে মাটি রক্তমাখা, সে মাটির বুকে থাকে অনেক কষ্ট। মানসম্পন্ন লেখা। শ্রদ্ধা জানবেন। শুভেচ্ছা।
    প্রত্যুত্তর . ২৪ ডিসেম্বর, ২০১৭

advertisement