লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৭ মে ১৯৯২
গল্প/কবিতা: ২টি

সমন্বিত স্কোর

৩.০৮

বিচারক স্কোরঃ ১.২৮ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৮ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftগল্প - ঋণ (জুলাই ২০১৭)

দেশের প্রতি আমার ঋন
ঋণ

সংখ্যা

মোট ভোট প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.০৮

মোঃআসাদুজ্জামান লিংকন

comment ৪  favorite ০  import_contacts ২৪৬
ইন্টেলিজেন্স সোর্সগুলা খবর পেয়েছে, বর্ডারের কাছে শত্রুর কিছু আনাগোনা লক্ষ্য করা যাচ্ছে। তাই,একটা বিশেষ স্পেশাল অপারেশন এর দায়িত্ব দিয়ে আমাদের যেতে বলা হয়েছে এই এলাকায়। শুধু আমরা না । আরো কয়েকটা গ্রুপ একই ভাবে বিভিন্ন এলাকা থেকে ভিন্ন রাস্তায় একই ধরনের অপারেশন এ বের হয়েছে। কিন্তু আমাদের টা একটু আলাদা। একটু বিপদসংকুল ও।
ভয় পাই না আমি। বরং একটু থ্রিলিং লাগে আমার। এটাই তো আমার কাজ, এর জন্যেই তো গায়ে ইউনিফর্ম লাগিয়েছে ও। দেশের জন্যে কাজ করার মধ্যে একটা আনন্দ আছে। অনেক মানুষ আছে যারা শুধু মুখেই বুলি আওড়ায়। নিজের হাতে দেশের পতাকা
রক্ষার কাজ করা। এর থেকে গর্বের ব্যাপার আর কিই বা আছে বলো।
নদীকেও একই কথা বলেছি আমি। নদী!আমার স্ত্রী। মাত্র কয়েকমাস হলো,বিয়ে হয়েছে আমাদের। পরিচয় অনেক দিনের হলেও আমার স্ত্রী আমাকে নতুন করেছে চিনেছে বিয়ের সাত দিনের মাথায়। সেদিন সকালে আমি ওকে বললাম তোমার
সাথে আমার সেদিন পরিচয়। আর ইউনিফর্ম এর সাথে যেদিন পরিচয় হয়েছিল, সেদিন কসম কেটেছিলাম,
জলে স্থলে অন্তরীক্ষে যেখানেই যাওয়ার আদেশ করা হবে, সেখানেই যাবো। সবার উপরে আমার দেশ, আমার
ইউনিফর্ম, তারপরে তুমি, এখন তুমি কষ্ট পেলেও আমার যেতে হবে। এটাই আমার সামরিক জীবন। মেনে নিতে

পারলে ভালো থাকবা, না পারলে কষ্ট পাবা। চয়েজ ইজ ইয়োরস, ডার্লিং। " এরপরে আমি ভেবেছিলাম, নদী হয়তো কষ্ট
পেয়েছে। কিন্তু আমি জানি না ও কতটা খুশি হয়েছিলো, জীবনে সব চেয়ে বড় সিদ্ধান্ত নিতে সে ভুল
করেনি জানতে পেরে। গর্বে বুকটা ভরে উঠেছিল সেদিন তার, এমন একটা মানুষের সহধর্মিণী হতে পেরে।হটাৎ মৃদু বাতাস এসে
গায়ে হিমেল পরশ বুলিয়ে গেলো। বিকেল হয়ে এসেছে, রোদের তেজ ও কমে এসেছে। থামতে হবে কোন জায়গায় আমাদের।
রাতের বেলায় মুভমেন্ট না করাই শ্রেয়। আশে পাশে পানির ঝর্না কই পাওয়া যাবে। সেখানেই থামবো আমরা।আমাদের একটু বিশ্রাম
দরকার।
ভোরে আবার রওনা হতে হবে। জানি সামনের রাস্তা
টা আরো
বন্ধুর হবে। তাতে কি। ইউনিফর্ম পরে
থাকলে কিছুই গায়ে লাগে না। এরই
নাম জীবন আমার কাছে।আমার এই পথ চলাতেই
আনন্দ....
হটাৎ টানা এলএমজি গান ফায়ারের
আওয়াজ-----------------------
একটা বুলেট বিদ্ধ করল আমাকে বুকের ঠিক মাঝখানটাতে।
আমি ঢলে পড়লাম মাটিতে।
প্রিয় দেশ রক্ত দিয়ে হলেও তোমার ঋন শোধ করা যাবে না। যতবার শত্রু আসবে আমি রুখে দাড়াবো।

advertisement

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • ইমরানুল হক বেলাল
    ইমরানুল হক বেলাল সুন্দর প্রকাশ!
    প্রত্যুত্তর . ২ জুলাই, ২০১৭
  • রুহুল  আমীন রাজু
    রুহুল আমীন রাজু বেশ লাগলো ... শুভেচ্ছা নিরন্তর । আমার পাতায় আমন্ত্রণ ।
    প্রত্যুত্তর . ৫ জুলাই, ২০১৭
  • খন্দকার আনিসুর রহমান জ্যোতি
    খন্দকার আনিসুর রহমান জ্যোতি প্রিয় দেশ রক্ত দিয়ে হলেও তোমার ঋন শোধ করা যাবে না। যতবার শত্রু আসবে আমি রুখে দাড়াবো।...// এখানে আমি=দেশ প্রেমের প্রতিক মনে হয়েছে আর আমার ধারনা ঠিক হলে লেখক সফল হয়েছে। তবে আর একটু যত্ন নিলে আবশ্যই লিংকন ভাইয়ের হাত থেকে আরো ভালো কিছু হবে আশা করা যায়। শুভ...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . ১০ জুলাই, ২০১৭
  • মামুনুর রশীদ ভূঁইয়া
    মামুনুর রশীদ ভূঁইয়া বেশ ছোট গল্পটি.. ভালো লাগল
    প্রত্যুত্তর . ২৯ ডিসেম্বর, ২০১৭

advertisement