অত্যাধিক সময়ের পরে-
আসবে সেই দিন।
সেই দিনেরই অপেক্ষাতে,
কাঁটলো যে কত দিন।
তাইতো আমি খুশি এবার,
পাবো এই দিন।
দিনটা হলো-
নতুন বছরকে,
নববর্ষের দিন।

এই দিনেতে হয় গো বাপু-
কত রঙের খেলা।
সেই খেলাতে মাতি সবাই,
আমরা মাতোয়াড়া।

সকালে উঠি-
খাই মোরা,
হরেক রকম খাবার।

সারা দিনটা কাঁটবে যেন,
আনন্দেরই সাথে।
এতে মোদের বছরটি যেন-
সুখে ভরপুর থাকে।

তাইতো আমি-
কিনবো জুতা, কিনবো প্যান্ট
পরবো খুশির দিনে।
এতে আমি মহাখুশি-
ঠেকায় যে আমায় কে?

তাইতো আমি-
সালাম করবো,
গুণিজনের পায়ে।
তাদের থেকে নিবো আমি,
সালামের সুপারিশ।
সেই সুপারিশ নিয়ে আমি
করবো অনেক মজা।

তাইতো আমি-
যাবো মেলায়,
দেখবো হরেক কিছু।
এই মেলাতেই-
পাবো আমি,
মনুষ্যত্বের পিশু।
এতে আমি মহাখুশি
আমি মুক্ত বাজী।

না-না-না
আমি এই দিনে কিছুই করবো না।
ঘরের মাঝে চুপটি করে,
বসে থাকবো একা।

সবাই মোরে কয় যে-
নববর্ষ পালন নাকি,
করে হিন্দু গোত্র।
একেই কি বলে নববর্ষ বরণ?
যেখানে হয় গোত্রের হুশিয়ারি,
এতে আমি মহাবেজার-
আমি রাগি হিটলার।

এভাবে যেন হারিয়ে না যায়-
মোদের সাংস্কৃতি।
তাইতো আমি-
বলতে পারি,
আমি মুসলিম তাই কি হয়েছে?
আমিও পালন করতে পারি,
নববর্ষের দিন।