মাগো তোমার পায়ের চিহ্ন মুছে গেছে
আঙ্গিনার আশ পাশ থেকে
মৃত্তিকায় মিশে গেছে তোমার রক্ত মাংশ,হাড্ডি
তবুও পদধ্বনি তোমার চার পাশের ধুলায় ধুলায়
কেউ চলে গেলে বুঝি মুছে যায়না সব
তবু কেন এই শুন্যতা হাহাকার
আগে আমি মরেই গেছি
ক্রন্দনরত চোখ কুয়াশার অন্ধকার
অনন্ত অসীম মহাকাশ
লেপ্টে আছে আবছা অন্ধকার
এই ঘোর অন্ধকারেও
আমার লেখার ভাবনা আসছে
জানি অন্ধকার আমার জীবনে
বেশী মানান সই।
কেন জানি আলোতে চোখ রাখলে কলমে সাঁয় চোখ
মাগো তোমার আদরের ধন থেমে গেছে
কাল বৈশখির চোটে
তপ্ত রোদে দহিত বালুকা রাশিতে মুক্তকন্ঠে
আজও গেয়ে যাচ্ছি জীবনের গান।