বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১২ অক্টোবর ১৯৯২
গল্প/কবিতা: ১৪টি

সমন্বিত স্কোর

১.৬৮

বিচারক স্কোরঃ ০ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৬৮ / ৩.০

অভিশাপ

রমণী ফেব্রুয়ারী ২০১৮

চিরকুট

প্রশ্ন ডিসেম্বর ২০১৭

সুগন্ধির ঠিকানায়

প্রশ্ন ডিসেম্বর ২০১৭

কবিতা - অধরা (জানুয়ারী ২০১৮)

মোট ভোট ১৪ প্রাপ্ত পয়েন্ট ১.৬৮ অধরা

নাজমুল হসেন

comment ১০  favorite ০  import_contacts ১৯২
মন-মস্তিষ্ক-স্নায়ুতে,ইচ্ছা-স্বপ্ন-সাধনার বসবাস,
অব্যক্ত ভাষা প্রায়ই,মনের নদীতেই ভাসতে থাকে,
হায়রে জোয়ার কবে আসবি তুই?
ভালোবাসার এতো মায়াজাল ছড়ানো,দিবা রাত্রির প্রাণে,
কেউ ব্যথিত হয় না চঁন্দ্র-সুর্যের বিরহ যাতনায়।
সূর্যের প্রদিপ্ত আলোতেই চন্দ্রিমা সুন্দরীর বাঁকা হাসি,
পশ্চিমাকাশ জুড়ে,মৃত্যু উপত্যকায়,আঁধার আসে চাঁদর হয়ে,
জোনাকী আর জোসনার হাত ধরে শষী,
রাঁধা হয়ে ঢোকে,প্রিয়োতমের মৃত কায়ায়।
পুর্ণ রাত্রির সহবাস শেষে,কি জেনো অধরাই রয়ে গেলো!
দিবা-রাত্রির খেলা ছলে,চন্দ্র-সূর্য মুক্তি পেলো না।
যে জলের নেশায় চাতকের,গুনতে থাকা প্রহর,
অতল সাগরের বুকে শুধুইতো জলরাশি,
সুমিষ্ট বৃষ্টি ফোঁটা,তার কাছে বড়ই অধরা।
যে যুবকের দিন কেটে যায়,প্রেয়সীর মুখচ্ছবি এঁকে,
হয়তো বা কোন দিন, হয় নি বলা,সেও রইলো অধরা।
কোন এক স্বামীর স্বাধ ছিলো অতি,একটা পুত্র হবে তার,
যাকে ঘিরে হবে জগৎ-সংসার।
পুত্র সে পাইনি কভু,মুখাবয়বে তার বার্ধক্যের হাহাকার।
মানুষের সহজাত প্রবৃত্তি,সাদা-কালো,রঙিনের মাঝে হারিয়ে যায়,
যদিও মন-মস্তিষ্ক-স্নায়ুতে,ইচ্ছা-স্বপ্ন-সাধনার বসবাস।
কিছুটা সে পায়,বাকিটা শুধুই অধরা!






আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • ম নি র  মো হা ম্ম দ
    ম নি র মো হা ম্ম দ যে জলের নেশায় চাতকের,গুনতে থাকা প্রহর,
    অতল সাগরের বুকে শুধুইতো জলরাশি,
    সুমিষ্ট বৃষ্টি ফোঁটা,তার কাছে বড়ই অধরা।মুগ্ধতা রেখে গেলাম...আমার পাতায় আমন্ত্রণ।
    প্রত্যুত্তর . ১৭ জানুয়ারী
  • কাজী জাহাঙ্গীর
    কাজী জাহাঙ্গীর নাজমুল ভাই দিনে দিনে অনেক সমৃদ্ধ হচ্ছেন এ লেখায় আর পদধ্বনি পেলাম। বেশ ভাল লিখেছেন আপনার জন্য অনেক শুভকামনা আর ভোট রইল।
    প্রত্যুত্তর . ২১ জানুয়ারী
  • নিশীতা মিতু
    নিশীতা মিতু ভালো লিখেছেন। সুন্দর প্রকাশ।
    প্রত্যুত্তর . ২৫ জানুয়ারী