লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১২ অক্টোবর ১৯৯২
গল্প/কবিতা: ১৪টি

সমন্বিত স্কোর

৩.২

বিচারক স্কোরঃ ১.৪৯ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৭১ / ৩.০

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftকবিতা - ঋণ (জুলাই ২০১৭)

ঋণের বোঝা
ঋণ

সংখ্যা

মোট ভোট ২০ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.২

নাজমুল হসেন

comment ১২  favorite ২  import_contacts ৩০৯
আরে ভাই গনী মিয়া,এত্ত বড় বোঝা নিয়া,
কোথায় চললে মশায়?
শোনো ভাই কাঠুরিয়া,কাইটোনা আর করাত দিয়া,
পরাণ বুঝি যায়!
পথ চলেছি জন্ম নিয়েই,ঋণের বোঝা মাথায়।
এত্ত বড় মহাধনী!তোমার ধনের অভাব নাই,
কেমন করে, তোমার শীরে, ঋণ নিয়েছে ঠায়?
জন্ম নিয়ে মায়ের বুকের দুধ খেয়েছি বেশ,
কেমন করে ঋণের বোঝা করব আমি শেষ?
চার পায়েতে হাঁটতে শেখা পিতার হাতটি ধরে,
আজকে পিতা হাঁটতে পারে,লাঠি ছেলের ভরে।
নেমক হারাম,করলো আরাম,মাতা-পিতার কাঁধে,
এমন বোঝা বইছি যে ভাই, আপন কামায় সাধে।
তোমার তো ভাই ঢের রয়েছে,শোধ করে দাও দায়?
আপন কামায় যা করেছি,হালাল কিছু নাই।
হারাম দিয়েই পরাণ মাখা,
এ ব্যরাম আরাম হবে কি ভাই?
তোমার যারা ছেলে সন্তান তাদের কিছু দাও,
এত্ত বড় ঋণের বোঝা একাই কেন বও?
সে সব কি আর সাধ করে হয়!
মোহর ফাকির বিয়ে-
বাকির খাতায় নাম লিখেছি,
শোধ হবে সব লাশের পরে গিয়ে।
এমন বউয়ের গর্ভে যারা,জগতে দেয় পাড়া,
কেমন করে পিতার ডাকে, দিতে পারে সাড়া?
আচ্ছা গনি মিয়া,কি লাভ তোমার হলো অবশেষ?
কি আর করা কাঠুরিয়া,ঋণের বোঝা ছিড়ছে মাথার কেশ।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • মোহাম্মদ হোসেন
    মোহাম্মদ হোসেন কবিতার আবেগটা বেশ লেগেছে ভাইয়া । ভোটও দিলাম তাই ।
    প্রত্যুত্তর . ২ জুলাই, ২০১৭
  • Md Hanif
    Md Hanif এক কথায় অসাধারণ
    প্রত্যুত্তর . ৩ জুলাই, ২০১৭
  • দয়াল মন্ডল
    দয়াল মন্ডল ভাল লাগল। ধন্যবাদ।
    প্রত্যুত্তর . ৫ জুলাই, ২০১৭
  • রুহুল  আমীন রাজু
    রুহুল আমীন রাজু অনেক ভাল লাগলো ... শুভেচ্ছা । আমার পাতায় আমন্ত্রণ ।
    প্রত্যুত্তর . ৫ জুলাই, ২০১৭
  • খন্দকার আনিসুর রহমান জ্যোতি
    খন্দকার আনিসুর রহমান জ্যোতি আপন কামায় যা করেছি,হালাল কিছু নাই।
    হারাম দিয়েই পরাণ মাখা,
    এ ব্যরাম আরাম হবে কি ভাই? ....// খুব ভাল ভাবেই ঋণের কষ্ট উঠে এসেছে ...অন্ত মিলেও দক্ষতার পরিচয় মেলে ...শুভ কামনা রইলো .........
    প্রত্যুত্তর . ৭ জুলাই, ২০১৭
  • মোঃ নুরেআলম সিদ্দিকী
    মোঃ নুরেআলম সিদ্দিকী আপনার অসাধারণ ভাবনায় মুগ্ধ হলাম দাদা। বেশ অনবদ্য চমৎকার লেখা। অনেক শুভকামনা ও ভোট রইলো।
    প্রত্যুত্তর . ৭ জুলাই, ২০১৭
  • আঁখি বিশ্বাস
    আঁখি বিশ্বাস বাকির খাতায় নাম লিখেছি,
    শোধ হবে সব লাশের পরে গিয়ে।
    এমন বউয়ের গর্ভে যারা,জগতে দেয় পাড়া,
    কেমন করে পিতার ডাকে, দিতে পারে সাড়া?............প্রথম দিকটা ভালই লাগলো.........কিন্তু মরার পরেও কি ঋন বাস্তবে শোধ হবে?
    "বউয়ের গর্ভে যারা,জগতে দেয় পাড়া," এই ল...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . thumb_up . ৮ জুলাই, ২০১৭
    • নাজমুল হসেন জি বাংলাদেশের অধিকাংশো নারীই স্বামীর মৃত্যুর পর মোহরণার টাকা মাফ করে থাকেন।এমন বউয়ের গর্ভে যারা, এখানে একটা হাই পেন দিয়ে ছেড়ে দিলে আপনারা সহজেই বুঝতে পারতেন আমি ছেলেকে বুঝাচ্ছি।এখানে কমা ব্যবহার ঠিক হয় নি।শেষের লাইনটা মাঝখানের লাইনের সাথে ছেলে কথাটা ধরলে মিলে যাবে।যাইহোক সামগ্রিক ভাবে কবিতাটি পড়লে ,ভুল ত্রুটি গুলো বাদ দিয়ে,বাকিটায় আপনি কিছু সত্য খুজে পাবেন।আপনার কাছে আরো বেশি বেশি বিশ্লেষনাত্নক সমালোচনা আশা করি।আপনাকে ধন্যবাদ।
      প্রত্যুত্তর . ১০ জুলাই, ২০১৭
  • কাজী জাহাঙ্গীর
    কাজী জাহাঙ্গীর নাজমুল ভাই, আপনার বিষয়টা বেশ চমৎকার কিন্তু বর্ননার ধারবাহিকতা নিয়ে কিছু প্রশ্ন থেকে গেল। লেখাটা আসলে একটা কথোপকথন, তাই না? কার সাথে কার, একজন কাঠুরিয়া আর একটা গাছ তাই মনে হল , তবে কথোপকথনটা কোথাও কোথাও ভারসাম্যহীন হয়ে গেল, আপনি কিন্তু সংগতি’র চেয়ে অসংগতি ...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . thumb_up . ৮ জুলাই, ২০১৭
    • নাজমুল হসেন আপনি একজন বিঞ সাহিত্যিক,আপনার বিশ্লেষন যতার্থ,তবেকবিতার মৌলিক নিয়মাবলীতে আমার কিছু দূর্বলতা আছে,সাহায্য করবেন আশা করি।ধন্যবাদ।
      প্রত্যুত্তর . ১০ জুলাই, ২০১৭
  • সেলিনা ইসলাম
    সেলিনা ইসলাম চমৎকার কবিতার থিম! একজন মানুষের কিছুটা আক্ষেপ বা অপরাগতা উঠে এসেছে কবিতায়। যা তার কাছে ঋণ এবং সত্য মনে হয়েছে। বেশ লিখেছেন-আরও ভালো ভালো কবিতা পড়ার প্রত্যাশায় শুভকামনা রইল।
    প্রত্যুত্তর . ১৩ জুলাই, ২০১৭
  • ইয়াসমিন আক্তার
    ইয়াসমিন আক্তার চমৎকার
    প্রত্যুত্তর . ১৪ জুলাই, ২০১৭

advertisement