লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১১ মার্চ ১৯৮২
গল্প/কবিতা: ১১টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftস্বাধীনতা (মার্চ ২০১১)

স্বাধীনতার ইতিকথা
স্বাধীনতা

সংখ্যা

মশিউর রহমান দুর্জয়

comment ১৩  favorite ২  import_contacts ৮৭০
মাগো-
আমায় তুমি শোনালে কেন, স্বাধীনতার ইতিকথা,
বুকের অলিন্দে ছোট্ট গহিনে, বেড়ে গেছে তাই ব্যথা।
সত্য গল্পটি অবাস্তব মনে হয়, একটু ভাবতে গেলে,
এতো কষ্টের নদী পার হয়ে মাগো, সোনার দেশটা পেলে?
মাগো-
আমার জন্ম কেন হলোনা, স্বাধীনতার অনেক আগে,
হিংস্র হয়ে এপোলো-১১ নিয়ে, ছুটিতাম সিংহ রাগে।
তোমার শেখা ভাষা মাগো, যারা বলে কেড়ে নেবো,
আবার এমন বাণী উচ্চারিত হলেই, জিহ্বা কেটে দেবো।

মাগো-
একটি বর্ণের জন্য কত শত প্রাণ, হয়েছে আজ অমর,
রক্তের বন্যা ভাসিয়ে দিয়ে, রক্ষা করেছে তোমার ঘর।
তাদের কি তুমি ভুলে যাবে মাগো, পারবে কি ভুলে যেতে?
তোমার সন্তান সেতো বেঁচে আছে, তাদের রক্তের স্রোতে।
মাগো-
কত ঝড় বুকে লালন করে, আমায় যেমন পেয়েছ তুমি,
ঠিক তেমনি মহা প্রলয় এসে, তাদেরকে রেখেছে ঘুমি।
ওদের সে ঘুম ভাঙ্গবে না কভু মাগো, তবু মনে হয়,
সোনার ফসল মাটি পশু পাখি, তাদেরই কথা কয়।
মাগো-
স্বাধীনতার কথা লিখতে গেলেই, কলম থেমে যায়,
শত্রুর বর্বরে আগুন ধরে, শরীরের রক্ত কণায়।
আমার দেশ আমারই মতো, সাজাবো নতুন করে,
আর স্মরণ করব যারা দেশের জন্য, অকালে গেছে ঝড়ে।
মাগো-
তুমি তো সবই শুনেছ কর্ণে, দেখেছ নয়ন মেলে,
এমন হৃদয় বিস্মিত স্মৃতি, ইতিহাসে কোথাও পেলে?
যেদিন সবাই ভাষার জন্য, নেমেছিল নদী বিলে,
সেদিন নিশ্চয়ই তুমি ভয়ে মাগো, কোথাও লুকিয়ে ছিলে।
মাগো-
কবিতার পাতায় স্বাধীনতার কথা, নীরবে পড়ি যখন,
দু'হাত বাড়িয়ে সেই দিন গুলি, আমায় ডাকে তখন।
ইচ্ছে করে আবার আমি, সেই দিনে ফিরে যাই,
তাহলে মাগো মনের ভিতর, কিছুটা সুখের ছোঁয়া পাই।

advertisement

আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন

advertisement