বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
গল্প/কবিতা: ২৯টি

সমন্বিত স্কোর

৪.১৬

বিচারক স্কোরঃ ২.৯৯ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.১৭ / ৩.০

কবিতা - রমণী (ফেব্রুয়ারী ২০১৮)

মোট ভোট ৩৭ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৪.১৬ যে চোখে রক্তনদী বয়ে চলে!

নাসরিন চৌধুরী
comment ১১  favorite ১  import_contacts ২১৪
আমার আকাশ জুড়ে
কামুক মেঘদল ভেসে ভেসে আসে
স্নিগ্ধ চুলের গন্ধে ভিড় করে ওরা অন্তিম নিশিতে!
কবি'র কবিতায় ঢেলে দেই যত সুধা;
শিল্পী'র ক্যানভাসেও রঙ ছড়াই দ্বিগুণ উল্লাসে!
কি যত্ন করেইনা নিজেরে বদলাই- প্রতিদিন বদলাই
কিন্তু কেউ কি জানে হেমলকের পেয়ালায় প্রতিরাত বাসর সাজাই আমি! ভাসি আমি, ভাসাই আমি!
কেউ কেউ আক্ষেপ করে বলো আমায়
আহা রমণী!

নেতিয়ে পড়া জীবনের ভাঁজে ভাঁজে হেঁটে দেখেছি,
কি অবলীলায় খুলে ফেলা যায় ক্ষুধা’র অন্তর্বাস!
যে রমণী’র চোখে একদিন প্রেম ছিলো! এক বুক স্বপ্ন ছিলো! সফেদ জীবনের লেনদেন স্থবির করে দিয়ে সে চোখে আজ রক্তনদী ছুটে চলে! বুকের গভীরে স্বপ্নের অন্তহীন চিতা জ্বলে!

আমি হারিয়েছি পথ, সেই পথ
যে পথের গলিতে শিউলি'র মেলা বসাতো কোনো প্রেমিক! হয়ত সে প্রেমিক আজও
আঁকড়ে ধরে আছে ঝলসে যাওয়া স্মৃতি'র পাণ্ডুলিপি! হয়তোবা সে অপেক্ষার মালা নিয়ে একাকী পড়ে থাকে ওই শূন্য পথের গলিতে!
ভাবে, যদি কোনোদিন সে পথ দিয়ে ফেরে এই নিবিড় রমণী!
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন