আমি কি লিখব ? কিছুই আসছে না আমার মস্তিষ্কে

আরো আট দশটা সাধারণ মানুষের মত আমি হতবাক হয়ে যাই

বাজারে দ্রব্যমুল্যের চড়া দাম দেখে, আমি চেয়ে দেখি সততাকে যারা

বিকিয়ে দিয়েছে তারাই আজ ব্যাগ বোঝাই করে বাজার করে,দামী গাড়িতে চড়ে

ছেলে-মেয়েদেরকে লক্ষ লক্ষ টাকা চাঁদা দিয়ে ডাক্তার ইঞ্জিনিয়ার বানায়।

একদিন তারাও একেকটা আস্ত কসাইয়ের মত হয়ে আমাদের জীবনে ছুরি চালায়

আমি কিংবা আমরা চেয়ে থেকে তাদের তাণ্ডব নৃত্য দেখি, অগোচরে হাততালি দিয়ে উঠি।

 

মধ্যবিত্ত কিংবা নিম্নবিত্ত আমাদের বেঁচে থাকতে প্রতিদিন যুদ্ধ করতে হয়

আমাদের সন্তানেরা আজ আর ডাক্তার-ইঞ্জিনিয়ার হতে পারে না , আমরা সেটা

মেনে নিয়েছি দারিদ্রতাকে পুঁজি করে। আমাদের উনুন শুকনো হয়ে যায়, তাতে আজকাল

গভীর ফাটলের রেখা দেখা দেয়। উনুন গুলো ও অভিশাপ দেয়,আমি কিংবা আমরা অনাহারে থাকি।

বর্ষায় একটি ইলিশ মাছ কেনার সাধ্য আমাদের নেই,তাই মস্তিষ্ক থেকে হতাশার কথা ভাবনায় রুপ নেয়।

টিভির টক শো গুলোতে বুদ্ধিজীবীদের বুদ্ধিমত্তা দেখে আমার হাসি পায়

আমাদের জীবন যেমন ছিল তেমনি থেকে যায়।আর তাই আমি কিছু লিখতে পারি না।