বিবর্তনের একি ধাক্কা!
রাতুলেরা সব  দেখতে দেখতে বাতুল হয়ে
বিবর্তনে বিবর্তনে আবার খাতুন হয়ে যায়
তা অবলোকনে আমাদের চিন্তা-ভাবনার
বিস্তর উদ্রেক হয় মস্তিষ্ক কোঠরে 
ভাবি কি হবে আর এ সব লিখে
এই বাগাড়ম্বর কথামালা সাজিয়ে
তার পূর্বে এভাবে বিছানায়
শুয়ে থাকে সব আত্ম-স্বার্থ গা এলিয়ে।

স্বাভাবিক চাহিদা ছিল
এক মুঠো ভালবাসার অন্য কিছু নয়
অথচ চলছে প্রাচীন চাহিদার মত
ছিনিয়ে নেওয়ার প্রতিযোগিতা-যুদ্ধ
কি করে ভিক্ষুক বনেছে সব
মুখোশ পরা ভদ্র মানুষেরা
বড় বড় সব ভালবাসার নীতি
কথা ভুলে যায় এখানে এসে।

যদি এমন-ই চলতে থাকে পথে বাঁকে বাঁকে
চলে যাব কোন একদিন অন্য কোথাও
কাউকে কিছু না বলে, স্থান শূন্য করে দিয়ে
অভিমান গুলো একাকী বুকে নিয়ে!
যদিও কারো কিছু যায়-আসে না এতে ।