বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

keyboard_arrow_leftসাহিত্য ব্লগ

যা কিছু হারিয়ে যাওয়া

লুতফুল বারি পান্না

  • advertisement

    বাতিল জীবন অভিনয়ের কড়চা
    শেষের খোপে ঢোকার আগে নামতা
    একটু পোষা, একটু তো হাত খরচা
    বুকের ভেতর জপছি আজো নাম তার

    বুকের ভেতর জমিয়ে রাখা অংক
    মিলছে না তাই সকাল থেকেই ব্যস্ত
    রাখনা এসব আদিখ্যেতা, ঢং তোর
    কাঁধের ওপর অনেকটা ভার ন্যস্ত

    আমায় জানি বাঁচিয়ে দিতে পারত
    দুপুর রঙা সেই মেয়েটার দৃষ্টি
    ভিন ধর্মী ছাড়াও বলা- আর তোর
    সকাল থেকে ঘনিয়ে আসা বৃষ্টি

    এখন তবে নতুন খুঁজি স্বার্থ
    জলের আঁচে শুকিয়ে যাওয়া অন্তর
    আমায় জানি পুড়িয়ে নিতে পারত
    আগুনে তার- সিদ্ধ সাধু-সন্ত

advertisement

  • ড. জায়েদ বিন জাকির শাওন
    ড. জায়েদ বিন জাকির শাওন দ্বিতীয় স্তবকটা বেশি ভালো লেগেছে পান্না ভাই! দারুন!
    প্রত্যুত্তর . ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
  • সূর্য
    সূর্য অন্তমিলের এই নতুন আইডিয়াটা বেশ ভালই উপভোগ করছি পান্না তোমার কবিতায়। একটা অনুরোধ থাকবে, "যেহেতু ব্লগে লেখার সুযোগ আছে নিজের লেখা দু-একটা কবিতার অন্ত মিল এবং আরো কিছু বিষয়ে আলোচনা করো। তাতে নতুন আমরা যারা লিখি তাদের বেশ উপকার হবে।"
    প্রত্যুত্তর . ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
  • লুতফুল বারি পান্না
    লুতফুল বারি পান্না এটা আসলে ঠিক নতুন আইডিয়া না সূর্য। মুক্তমঞ্চে লিখতে লিখতে এমন ধারার অন্ত্যমিলের মুখোমুখি অনেক হয়েছি। সেখানে অবশ্য অন্ত্যমিল নিয়ে আরো ব্যাপক এক্সপেরিমেন্ট হয়। তবে সত্যি বলতে কি এই ধারাটা শঙ্খ ঘোষ শুরু করলেও এর বহুমাত্রিক ব্যবহার করে প্যাটেন্টটা নিয়ে রেখেছে...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১২
    • লুতফুল বারি পান্না শুধু তাই না। কবিতাকে পেশা হিসেবে বেছে নিয়ে জীবন চালান এমন একজন কবি হলেন শ্রীজাত। সন্দেহ নেই আমাদের দেশে যেমন হুমায়ুন আহমেদ ব্যাপক মারকাটারী সমালোচনার মুখে পড়েন ক্লাসিক লেখকদরে কাছে। ঠিক তেমন শ্রীজাতর সমালোচকদেরও অভাব নেই। কিন্তু সত্যি কথা হল জীবনানন্দের সামালোচকেরও কি অভাব ছিল।
      ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১২