বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২ জানুয়ারী ১৯৮৩
গল্প/কবিতা: ৭টি

সমন্বিত স্কোর

৩.৯

বিচারক স্কোরঃ ২.৫৯ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৩১ / ৩.০

রমণী

রমণী ফেব্রুয়ারী ২০১৮

স্বপ্ন ছোঁয়ার অপেক্ষায়

স্বপ্ন জানুয়ারী ২০১৮

ক্যনভাসে তোমার ছবি

প্রশ্ন ডিসেম্বর ২০১৭

কবিতা - কষ্ট (ডিসেম্বর ২০১৭)

মোট ভোট ৩৭ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.৯ অনুভবের বৃষ্টিতে ভিজে একাকার হয়ে যাক

মাইনুল ইসলাম আলিফ
comment ২০  favorite ১  import_contacts ৩০০
অনুভুতির প্যাকেট সিলগালা করে দিয়েছি,
চাইলেই তুমি আর আমাকে যখন তখন, ,
কষ্টের বৃষ্টিতে ভেজাতে পারবেনা।
চাইলেই তুমি আর তোমার মুক্তা ঝরানো হাসিতে
সাইবেরিয়া থেকে উড়ে আসা শীত পাখিদের অভাবিত
আনন্দের সীমায় আমাকে উদ্বেলিত করতে পারবেনা।

অথচ আমি চাইলেই,
সিলেটের বদরুলের মতো অসংখ্য খাদিজাকে
প্রকাশ্যে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত করে আইসিইউ তে পাঠাতে পারি।

আমি চাইলেই , সীমান্তে অসংখ্য ফেলানীকে
নির্মম পাশবিকতায় হত্যা করে ঝুলিয়ে দিতে পারি কাঁটাতারে।

আমি চাইলেই ,আরাকান থেকে রোহিঙ্গাদের মতো
তাবৎ বিশ্বের অসংখ্য রাজ্য থেকে মানুষ কিংবা মানুষকে
উৎখাত করে দিয়ে লাখো লাখো শরনার্থী করে পাঠাতে পারি।

আমি চাইলেই , অসামাজিক ভীরুতায়
লাখো লাখো জোড়া খুনের দায়,
নির্মম সাহসিকতায় স্বীকার করতে পারি।

আমি গুনে ধরা চৌকাঠে দাঁড়িয়ে
আড়াল করি দীনতা।
হীনতায়, নীচতায় আঁকড়ে ধরি প্রহসন।
কষ্টে, যন্ত্রনায়,আক্ষেপে পুড়ি , হায়!
নিছক তামাশায় একটিবার সিলগালা খুলে দাও,
দেখে নিও ডানা ছেঁড়া বলাকারে কাছে টেনে নেব
পরম আদরে,অনুভবের মরমে মরমে।
ইচ্ছেঘুড়ির মতো মানবতার মানসে এঁকে নেবো
মায়া আলপনা।
আদর সুর্যটা আবার উঠুক,
ওপার আকাশে উড়া ঘুড়ির নাটাই তবু
আমার হাতেই থাকুক।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন