বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২ অক্টোবর ১৯৭০
গল্প/কবিতা: ১৮টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

৭১

এই ঋণ কেমনে শোধিব

ঋণ জুলাই ২০১৭

ধর্ম যার যার-মানুষ সবার

পার্থিব জুন ২০১৭

অপসংস্কৃতির আগ্রাসন

নগ্নতা মে ২০১৭

মুক্তির চেতনা (মার্চ ২০১২)

মোট ভোট ৭১ চেতনাহত মুক্তি

জাফর পাঠান
comment ৩৪  favorite ৩  import_contacts ৬৭১
বুক বেঁধেছিল ওরা-
কৃষক, শ্রমিক, মজুর ও খেটে খাওয়া মানুষেরা,
বুক বেঁধেছিল ওরা-
অবহেলিত, বঞ্চিত, শোষিত, অত্যাচারিত মানুষেরা।
বুক বেঁধেছিল ওরা-
মৌলিক অধিকার ও বাকস্বাধীনতা বঞ্চিতরা,
বুক বেঁধেছিল ওরা-
মুক্তির চেতনা রন্ধ্রে রন্ধ্রে ধারক ও বাহকেরা।
বুক বেঁধেছিল ওরা-
একদিন হব স্বাধীন গাইবো মুক্ত বিহঙ্গের গান।
দেখিব নিষ্পাপ শিশুর পরিতৃপ্তির হাসি
দেখিব হারানো ছেলেকে খুঁজে পাওয়া মায়ের হাসি।
কিন্তু হায়-
মুক্তির চেতনায় স্বপ্নে দেখা এই কি সেই দেশ-
যেথায় মুক্তিযোদ্ধার হাতে ভিক্ষার ঝুলি, গায়ে ছিন্ন বস্ত্র
যেথায় ন্যায়ের ঝান্ডাধারীদের হতে হয় সর্বশান্ত।
কিন্তু হায়-
মুক্তির চেতনায় স্বপ্নে দেখা এই কি সেই দেশ-
যেথায় গুম, হত্যা, সন্ত্রাস, দূর্ণীতিই নীতি
যেথায় রাষ্ট্রযন্ত্রের যাঁতাকলে মানবাধিকারের আকুতি।
কিন্তু হায়-
মুক্তির চেতনায় স্বপ্নে দেখা এই কি সেই দেশ-
যেথায় প্রতিদিন রক্ত ঝরে ভীনদেশী হানায়
যেথায় দেশপ্রেমের চেতনা প্রতিনিয়ত মুখ লুকায়।
ভাঙ্গা তীরে দাঁড়িয়ে তবুও বুক বাঁধি-
দাঁড়াবে বাংলাদেশ, দাঁড়াতেই হবে একদিন
যেদিন ভেসে যাবে দালালেরা, ভেসে যাবে শোষকেরা
মুক্তির ঝাণ্ডা হাতে একদিন দাঁড়াবেই দেশপ্রেমিকেরা ।।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • আহমেদ সাবের
    আহমেদ সাবের এত দিনের জমানো জঞ্জাল এক দিনে কি যাবে রে ভাই? চল্লিশ বছর ধরে প্রশ্রয় দিয়ে দিয়ে দালালদের আমরা সিন্দাবাদের দৈত্যের মত ঘাড়ে তুলেছি। ওরা কি অত সহজে নামবে? বেশ বলিষ্ঠ কবিতা। আপনার মত আমারও আশা - "মুক্তির ঝাণ্ডা হাতে একদিন দাঁড়াবেই দেশপ্রেমিকেরা"।
    প্রত্যুত্তর . ১৫ মার্চ, ২০১২
    • আহমাদ মুকুল সাবের ভাই, দৈত্য তো পরাজিতই হয়েছে। সিন্দাবাদের ঘাড়ে চেঁপে আছে নাছোড়বান্দা ভূত।
      প্রত্যুত্তর . ১৫ মার্চ, ২০১২
    • আহমেদ সাবের আহমাদ মুকুল ভাইজান, দশ বছর সৌদি আরব ছিলাম। দৈত্যদের কর্মকাণ্ড নিজের চোখে দেখা। কোনদিন সুযোগ পেলে বলার আশা আছে।
      প্রত্যুত্তর . ১৫ মার্চ, ২০১২
    • জাফর পাঠান নব্যজঞ্জালে দেশ আক্রান্ত !সীমান্ত হত্যা,অপসংস্কৃতি,হিন্দি দ্বাড়া মার্তৃভাষা আক্রান্ত,মাদক দ্বাড়াযুব সমাজ ধ্বংস,পানি আগ্রাসনের মাধ্যমে শস্য-শ্যামলা বাংলাকে মরুভূমিকরন আর অর্থনৈতিক শোষণের মাধ্যমে জাতিকে পরনীর্ভরশীলকরন ।এইতো কস্টে অর্জিত মার্তৃভূমির বর্তমান চিত্র ।কোনটা বেশী প্রয়োজন ?দেশ উন্নয়ন নাকি জাতি বিভক্তিকরন ?হত্যার বদলে হত্যা নাকি ক্ষমা ?পুরো জাতি এখন আমার ভাই-বোন,মা-বাবা । যদি হত্যাই সমাধান হয়ে থাকে তাহলে সবাই একদিন দেখতে পাবে এ জাতি নতুন শোষকের কাছে পরাধীন !কবিতার মর্মার্থ অন্তরস্হে জানাই সংগ্রামী অভিবাদন ।
      প্রত্যুত্তর . ১৬ মার্চ, ২০১২
  • নিলাঞ্জনা নীল
    নিলাঞ্জনা নীল শেষের দিকে এসে আশা টা ভালো লাগলো......
    প্রত্যুত্তর . ২৮ মার্চ, ২০১২
    • জাফর পাঠান আমার “চেতনাহত মুক্তি”সাম্রাজ্যে বিচরন করা সর্বশেষ দর্শনার্থী আপনি ,কি দিয়ে যে আপনাকে আপ্যায়ন করি ঠিক ভেবে পাচ্ছিনা ! যাক দর্শনার্থীর দর্শন ভালো যে লেগেছে এতেই তৃপ্তির ঢেকুর তুললাম।আর দর্শনার্থীর প্রতি রইল গাছে হেলান দেয়া শুভেচ্ছা।
      প্রত্যুত্তর . ২৮ মার্চ, ২০১২
  • মৃন্ময় মিজান
    মৃন্ময় মিজান আমিও আশাবাদী হতে চাই কবির মত।...ধন্যবাদ।
    প্রত্যুত্তর . ২৯ মার্চ, ২০১২
    • জাফর পাঠান প্রথমে আশা পোষন তারপর বাস্তবায়ন।আশার বাস্তবায়নে এখন আমাদের সবাইকে দেশপ্রেমিকদের দলে নাম লেখাতে হবে।যুদ্ধ শুরু করতে হবে এখনই ।এই যুদ্ধ আপনাকে আমাকে ছড়িয়ে দিতে হবে প্রতিটি ঘরে ঘরে।পরন্ত বেলায় পাঠক সঙ্গি পেয়ে ভালোই লাগছে।....আপনাকেও ধন্যবাদ।
      প্রত্যুত্তর . ২৯ মার্চ, ২০১২
    • মৃন্ময় মিজান আমাদের আশাগুলো শানিত তরবারি হয়ে উঠুক...আসন্ন যুদ্ধে বিজয়ী হোক সুন্দর আগামীর প্রত্যাশা....
      প্রত্যুত্তর . ৩০ মার্চ, ২০১২
    • জাফর পাঠান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা মিশ্রিত শুভেচ্ছা আপনাকে।
      প্রত্যুত্তর . ৩০ মার্চ, ২০১২