বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৪ মে ১৯৬৭
গল্প/কবিতা: ১টি

গল্প - বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী (নভেম্বর ২০১৭)

সেই লোকটা

Eliza Rahman
comment ৫  favorite ০  import_contacts ১৬১
রোদের তেজ নেই তেমন । ওদের হাটতে ভালো ই লাগছিল।
রাতুলের আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকতে ভালো লাগছে এখন । সন্ধ্যার আকাশ অনেক সুন্দর লাগে ওর। মাঝে মাঝে ও ভাবে পৃথিবীর মতো আরও গ্রহ কি আছে ? তারা কি মানুষের মত ? নাকি তারা অন্য ধরনের কোন প্রাণীর মত দেখতে ? ভিনগ্রহের প্রাণীরা মানুষের মত হলেও গল্প উপন্যাসে তাদের দেখান হয় আলাদা চেহারার , যেমন একটি সিনেমায় ভিনগ্রহের প্রাণীটার গায়ের রঙ দেখানো হয় সবুজ । ভিনগ্রহের প্রাণীরা অনেক দিন ধরেই পৃথিবীতে আসছে ।

রাতুল ভাবছিল, Easter Island এর দাঁড়িয়ে থাকা মূর্তিগুলো কারা কি জন্যে বানিয়েছে কেউ জানে না , মূর্তি গুলোর একটার চেহারা আর একটার সঙ্গে মেলে না ,মিশরের পিরামিডগুলো তখনকার দিনের মানুষ ক্রেন ছাড়া এত উঁচুতে কিভাবে তুলতে পারল , এসব প্রশ্নের একটাই উত্তর হয়তো ভিনগ্রহের মানুষেরাই এগুলো তৈরি করেছে ।
সে রায়ানকে জিজ্ঞেস করল , ' তুই এলিয়ন আছে এইটা বিশ্বাস করিস , রায়ান ?'
রায়ান বলল , ' জানি না ,তবে time travel করা যায় এইটা বিশ্বাস করি । কত ভালো হত যদি ভবিষ্যতে কি হবে আমাদের দেখে আসতে পারতাম !'
দুজনে গল্প করতে করতে বাড়ি পৌঁছে গেছে । ওদের বিকেলে রফিক স্যার এর বাসায় physics কোচিং আছে । গোসল করে আসতে না আসতেই মা ভাত খাওয়ার জন্যে ডাকল। বাবা চেম্বারেই খাবেন .. আজকে ওনার একটা OT আছে , বাসায় আসতে আসতে রাত দশটা ।
কোচিং শুরু হয় ৫টা থেকে । রাতুল রায়ানকে ওর বাসা থেকে ডেকে নিল। বড় রাস্তার মোড়ের মাথায় আসতেই রায়ানের সাইকেলের চাকার মধ্যে একটা ইট না পেরেক কি জানি ঢুকে চাকা পাংচার হয়ে গেলো । কোচিং এ পৌঁছাতে দেরী হল। কোচিং শেষে রফিক স্যার বললেন , ' রাতুল , তুমি physics অবশ্যই A+ পাবে , but don't waste your time ..do a lot of practice ."
'স্যার আপনি বলছেন কারণ আপনি আমাদের স্নেহ করেন , আমি চেষ্টা করব আপনার মান রাখার । দোয়া করবেন , ভালো result না করতে পারলে তো medical এ chance পাবো না ,আমি জানি স্যার ।"
রায়ান বলল , ' আর আমি স্যার ?'
রফিক স্যার হেসে বললেন , ' হ্যাঁ , তুমিও পাবে রায়ান , তোমাদের দুজনেরই ভবিষ্যতে উজ্জ্বল , তোমরা দুজনেই আমাদের গর্ব ।'
কোচিং শেষ । দুজনেই বাড়ি ফিরছে সাইকেলে। এখনো অন্ধকার হয়নি । আকাশে কয়েকটা তারা মাত্র ফুটছে। বাতাসও তেমন জোর নয় হালকা হাওয়া । দুজনেই বেশ speed এ সাইকেল চালিয়ে আসছিল আর কোন স্যার কিভাবে কথা বলেন , কোন students কি কি বদঅভ্যাস আছে তাই নিয়ে গল্প করছিল । হঠাৎ কোথ্থেকে একটা লোক রাতুলের সাইকেলের সামনে পড়ল। ফাঁকা রাস্তায় লোকটা কিভাবে এসে পড়ল ওদের মাথায় ঢুকল না।
রাতুল পাগল মনে করে সরে চলে যাচ্ছিল , তখনই লোকটা বলে উঠল , 'তোমরা সাবধান , এলিয়েনরা আসছে । '
রাতুল বলল , ' আপনি পাগল না গাজা খেয়ে এসেছেন ? কি বললেন আপনি এলিয়েন আসছে ? আপনি কোথায় থাকেন ? আপনাকে তো আগে কখনো দেখি নি ।'
লোকটা বলল , ' আমি ভবিষ্যতের মানুষ । আমার আসার কথা ছিলো 2018 কিন্তু সময় যন্ত্রের ভুলে আমি আগেই চলে এসেছি তোমাদের সাবধান করতে এলিয়েনদের সম্পর্কে । পৃথিবীকে বাঁচাতে তোমাদের প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে যতদ্রুত সম্ভব । এলিয়েনরা আসছে প্রতিবার । তারা পৃথিবীর মানুষকে বশ করে ফেলবে ,যেটা পৃথিবীর মানুষের জন্যে কল্যাণকর হবে না। মানুষকে সাবধান করার জন্যই আমি অতীতে এসেছি ।আমি বাস করি 2035 সালে । তোমরা আমার কথা বিশ্বাস কর।'
রাতুলরা কি বলবে বুঝতে পারছিল না।
রায়ান জিজ্ঞেস করল , 'আপনি time travel করলেন কিভাবে ?'
' এলিয়েনদের সঙ্গে আছি আমি । ওদের সবকিছুর plan আমি জানি । ওদের কাজে সাহায্য করতে করতে ওদের বিশ্বাস অর্জন করেছি ।'
রায়ান বলল , 'আমাদের প্রযুক্তি তো এত উন্নত না ,আমরা কিভাবে এলিয়েনদের প্রতিরোধ করব ?'
লোকটা বলল , 'মানুষ আলাদা আলাদা হয়ে থাকলে তাকে হারিয়ে দেয়া যায় , কিন্তু একজোট হলে যে কোন শক্তির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করা যায় । তোমরা বুদ্ধি দিয়ে এলিয়েনদের প্রতিরোধ করবে । '
লোকটাকে পাগল মনে হচ্ছে যদিও তার কথায় যুক্তি আছে । তার কথাবার্তা আর কার্যকলাপ আজগুবি , তবুও তার হাতের bracelet টার মতো একটা জিনিস আছে যা রাতুলরা আগে কখনোই দেখে নি, ওটার ভিতর থেকে লাল নীল আলো বের হচ্ছে আর কেমন ঝিঁ ঝিঁ আওয়াজ আসছে । লোকটা একটা button press করতেই হঠাৎ একটা বিদ্যুত্ের ঝলকানি দেখল ওরা । চোখের পাতা আপনাআপনি বন্ধ হয়ে গেলো দুজনেরই আলোর ধাক্কায়। চোখ খুলে ওরা আর কোন লোক দেখতে পেল না॥
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • সেলিনা ইসলাম
    সেলিনা ইসলাম প্রথমেই গল্পকবিতায় স্বাগতম। গল্পে চমৎকার একটা শিক্ষণীয় ম্যাসেজ আছে। তবে গল্প লেখায় আরও সময় দিতে হবে। ভালো লেখকদের লেখা বেশি বেশি পড়তে হবে। গল্পে যে ইংরেজি শব্দগুলো ব্যবহার করা হয়েছে তা বাংলায় লিখুন যেমন-students না লিখে স্টুডেন্ট, time trave না লিখে টাইম ...  আরও দেখুন
    প্রত্যুত্তর . ২ নভেম্বর
  • মোঃ নুরেআলম সিদ্দিকী
    মোঃ নুরেআলম সিদ্দিকী মানবজাতিকে ভবিষ্যাদ্ধানীর বার্তা দিয়ে চমৎকার গল্প লিখেছেন; এলিয়েনেরা কোন একদিন পৃথিবীতে আসতে পারে, যেমন আগে এসেছিল। তবে তা কল্যানকর হবে না, খুব ভালো লেগেছে। তবে কি জানেন আপু, বাংলা সাহিত্যের বেলায় ইংলিশ লেখাটাকে বাংলা দেওয়াই শ্রেয়..... শুভকামনা রইল।
    প্রত্যুত্তর . ২ নভেম্বর
  • বিশ্বরঞ্জন দত্তগুপ্ত
    বিশ্বরঞ্জন দত্তগুপ্ত ...." মানুষ আলাদা আলাদা হয়ে থাকলে তাকে হারিয়ে দেয়া যায় , কিন্তু একজোট হলে যে কোন শক্তির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করা যায় " .... । ভাল লাগল । শুভকামনা রইল ।
    প্রত্যুত্তর . ৫ নভেম্বর